ঈশ্বরগঞ্জে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত পুলিশ কনস্টেবলের মৃত্যু

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার ৪ এপ্রিল, ২০১৯ /

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণার সময় নৌকার সমর্থকদের হামলায় আহত পুলিশ কনস্টেবল সাখাওয়াত হোসেন মারা গেছেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকালে মারা যান তিনি। সাখাওয়াত হোসেন গৌরীপুর উপজেলার মহিশরন গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে। তিনি সিলেট জেলখানায় পুলিশ কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পঞ্চম উপজেলার চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচনে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার আঠারবাড়ী ইউনিয়নের রায়েরবাজারে ২৮ মার্চ সন্ধ্যায় স্বতন্ত্র প্রার্থী (আনারস প্রতীক) বদরুল আলম নির্বাচনী প্রচারণায় যান।
নৌকার সমর্থকরা বদরুল আলমের প্রচারণায় বাধা দিলে উভয় পক্ষ বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর দেশীয় অস্ত্রসহ হামলা চালায় নৌকার সমর্থকরা।

তখন প্রার্থীকে বাঁচাতে গিয়ে আহত হন বেশ কয়েকজন। এর মধ্যে কনস্টেবল সাখাওয়াত হোসেন গুরুতর আহত হন। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসাপতালে ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এক সপ্তাহ চিকিৎসাধীন থাকার পর বুধবার সকালে মারা যান তিনি।

আঠারবাড়ী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আব্দুল মোতালেব চৌধুরী জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। ঘটনায় জড়িত মোস্তাফিজুর রহমান স্বপন ও রবিন জেলহাজতে। কয়েকজন জামিনে থাকলেও আহত পুলিশ কনস্টেবল মারা যাওয়ায় আসামিদের গ্রেফতার করা হবে।

ঈশ্বরগঞ্জ থানা পুলিশের ওসি আহাম্মেদ কবির বলেন, ২৮ মার্চ ঈশ্বরগঞ্জের রায়েরবাজার বাসস্ট্যান্ড এলাকায় আওয়ামী লীগের উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহমুদ হাসান সুমন এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী বদরুল আলম প্রদীপের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় উভয় পক্ষের দিকে ছোড়া ইটের আঘাতে আহত হন কনস্টেবল সাখাওয়াত হোসেন। অবশেষে তিনি মারা গেছেন। এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :