ঈশ্বরগঞ্জে বেড়াতে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

উপজেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : রবিবার ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ /

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বেড়াতে নিয়ে ধর্ষণ করেছে কথিত প্রেমিক উপজেলার সরিষা ইউনিয়নের চাপিলাকান্দা গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে আজিজুল ইসলাম।

গত বৃহস্পতিবারের ঘটনায় শুক্রবার রাতে মামলা হলে অভিযুক্ত আজিজুল ইসলামকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গতকাল তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি আহম্মেদ কবির বলেন, আজিজুলের ইজিবাইকের যাত্রী হয়ে দিন বিশেক আগে নানাবাড়ি বেড়াতে যাচ্ছিল অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী মেয়েটি। তার কাছ থেকে কৌশলে ফোন নম্বর নিয়ে নেয় আজিজুল। এরপর ছাত্রীটির সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলতে শুরু করে। বিশ দিনের আলাপচারিতায় দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

গত বৃহস্পতিবার স্কুলে যাওয়ার পথে ছাত্রীটিকে ঘুরতে যাওয়ার কথা বলে ময়মনসিংহ শহরে নিয়ে যায় আজিজুল। সেখানের একটি পার্কে ঘোরাঘুরি শেষে এক বন্ধুর বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নানা হুমকি দিয়ে ছাত্রীটির ওপর নির্যাতন (ধর্ষণ) চালানো হয়। সন্ধ্যার পর ছাত্রীটি বাড়ি ফিরে পরিবারের সঙ্গে তার ওপর নির্যাতনের কথা জানায়।

বিষয়টি নিয়ে শুক্রবার দিনভর স্থানীয়ভাবে মিটমাট করার চেষ্টা হয়। এর মধ্যে খবর পেয়ে শুক্রবার রাতে পুলিশ নির্যাতিত ছাত্রীটিকে উদ্ধার ও অভিযুক্ত আজিজুল ইসলামকে আটক করা হয়। পরে ছাত্রীটির বাবা বাদী হয়ে আজিজুলকে আসামি করে থানায় মামলা করেন।

আপনার মতামত লিখুন :