একনেক সভায় ময়মনসিংহের কেওয়াটখালী সেতুসহ ৮ প্রকল্প অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত : মঙ্গলবার ২৪ আগস্ট, ২০২১ /

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) ৮ প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে ময়মনসিংহের কেওয়াটখালী সেতু। এগুলো বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৫ হাজার ৪৪১ কোটি ৬৩ লাখ টাকা। এরমধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ৩ হাজার ৩৩২ কোটি ৭২ লাখ টাকা, বৈদেশিক সহায়তা থেকে ২ হাজার ৬০ কোটি ৯৮ লাখ টাকা এবং বাস্তবায়নকারী সংস্থা থেকে ৪৭ কোটি ৯৩ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে।

মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বৈঠকে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের বিফ্রিং করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম। এসময় উপস্থিত ছিলেন ভৌত অবকাঠামো বিভাগের সদস্য মামুন আল রশীদ, আর্থ সামাজিক অবকাঠামো বিভাগের সদস্য মোসাম্মৎ নাসিমা বেগম এবং আইএমইডির সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘ময়মনসিংহ আমার স্মৃতিময় জায়গা। সেখানে আমি সাত বছর চাকরি করেছিলাম। সেখানে কেওয়াটখালিতে একটা সেতু আছে। এখন নতুন করে আর একটি করা হবে। এজন্য এআইআইবি থেকে ঋণ পাওয়া যাবে। এ প্রকল্পে শুধু সেতু নয়, ওভারপাস, আন্ডারপাস ও রাস্তা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘রফতানিপণ্য বহুমুখীকরণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। শুধু পোশাকের ওপর নির্ভর করলে ভবিষ্যতে সমস্যা হতে পারে।’

একনেকে অনুমোদিত প্রকল্পগুলো হচ্ছে- আরবান রেজিলেন্স প্রজেক্ট ঢাকা নর্থ সিটি করপোরেশন পার্ট প্রকল্প। মাদারগঞ্জ-কয়রা-মনসুরনগর (কাজীপুর)-আব্দুল্লাহ মোড় (সরিষাবাড়ী)-ধনবাড়ী সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প। ময়মনসিংহে কেওয়াটখালি সেতু নির্মাণ প্রকল্প। দারিদ্র্য বিমোচনের লক্ষ্যে ব্যাপক প্রযুক্তি নির্ভর সমন্বিত সম্পদ ব্যবস্থাপনা (তৃতীয় পর্যায়) প্রকল্প।

এছাড়া কেন্দ্রীয় প্যাকিং হাউজে স্থাপিত উদ্ভিদ সংগনিরোধ ল্যাবরেটরিকে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন ল্যাবরেটরিতে রূপান্তর; ক্লাইমেট স্মার্ট এগ্রিকালচার অ্যান্ড ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট প্রজেক্ট; দিনাজপুর জেলার ঢেপা, পুনর্ভবা ও টাঙ্গন নদীর তীর সংরক্ষণ এবং বিদ্যমান গ্রিড উপকেন্দ্র ও সঞ্চালন লাইনের ক্ষমতাবর্ধন প্রকল্পও একনেকে অনুমোদন করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :