এক মাসের সম্মানী জেলা পরিষদ ফান্ডে দিলেন খায়রুল বাসার

প্রকাশিত: ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৬, ২০২০

করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় এক মাসের প্রাপ্ত সম্মানী জেলা পরিষদ ফান্ডে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের সদস্য এইচএম খায়রুল বাসার।

বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) রাতে নিজের ফেসবুক ওয়ালে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে তিনি এ ঘোষণা দেন। একই সঙ্গে তিনি এই সংকট মোকাবিলায় অন্যান্য জনপ্রতিনিধিদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

এর আগে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে জেলা পরিষদ সদস্য বাসার তার বাড়ির ভাড়াটিয়ার ভাড়া মওকুফ করে দেন।

জানা গেছে, জেলা পরিষদ সদস্য এইচএম খায়রুল বাসারের বাড়ি ময়মনসিংহের গৌরীপুর পৌর শহরের কৃষ্টপুরে। দেশে করোনাভাইরাস আতঙ্ক শুরু হলে গত ১২ মার্চ করোনা প্রতিরোধ ও জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ‘বঙ্গবন্ধুর শতবর্ষ উদযাপন কমিটির’ ব্যানারে গৌরীপুরে এক মাসব্যাপী কর্মসূচি শুরু করেন জেলা পরিষদ সদস্য বাসার।

এরপর গৌরীপুরের শহর থেকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে পথসভা, লিফলেট বিতরণ, সচেতনমূলক মাইকিং, স্কুল শিক্ষার্থীদের নিয়ে সেমিনারসহ বিভিন্ন কর্মসূচি করে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম শুরু করে সাড়া জাগান।

সম্প্রতি দেশে করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্তের পর উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দ্রব্যমূল্যের দাম বেড়ে গেলে গত মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) জেলা পরিষদ সদস্য বাসার গৌরীপুর শহরে নিজ বাসার ভাড়াটিয়াদের ভাড়া মওকুফ করে দেন।

সর্বশেষ বৃহস্পতিবার রাতে বাসার নিজের ব্যক্তিগত ফেসবুক ওয়ালে জেলা পরিষদ থেকে প্রাপ্ত সম্মানী করোনাভাইরাস সংকট মোকাবিলায় দান করার ঘোষণা দেন।

জানতে চাইলে খায়রুল বাসার বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার প্রাণঘাতী করোনার সংক্রমণ থেকে দেশবাসীকে রক্ষা করা। পাশাপাশি নিম্ন আয় ও ছিন্নমূল মানুষর পাশে দাঁড়ানো। তাই আমি বাড়ি ভাড়া মওকুফের পাশাপাশি এক মাসের সম্মানী জেলা পরিষদের ফান্ডে জমা দিয়ে দিচ্ছি। অন্যান্য জনপ্রতিনিধিরাও এভাবে এগিয়ে আসলে সরকারের পক্ষে করোনা মোকাবিলা অনেক সহজ হয়ে যাবে।’