করোনাভাইরাসের চিকিৎসার প্রচারপত্র বিলি করে চিকিৎসক কারাগারে

প্রকাশিত: ৭:৫৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০২০

করোনাভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের কিছু নেই, হোমিও চিকিৎসায় করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক পাওয়া যায় ও চিকিৎসা দেয়া হয় এবং নির্মূল সম্ভব এমন প্রচারপত্র বিলি করে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করার অভিযোগে এক চিকিৎসককে ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শুক্রবার রাতে মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার জাবরা বাজারে এ অভিযান চালানো হয়। দণ্ডাদেশপ্রাপ্ত হোমিও চিকিৎসক মো. সুলতান উদ্দিন জাবরা বাজারে প্রফেসর হোমিও হলের মালিক। তিনি ঘিওর উপজেলার বালিয়াখোড়া ইউনিয়নের সাইংজুরি গ্রামের মনোর উদ্দিনের ছেলে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ঘিওর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আইরিন আক্তার জানান, প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের এখন পর্যন্ত বিশ্বে কোনো প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি। অথচ সুলতান উদ্দিন ভুয়া পোস্টার ছাপিয়ে স্থানীয়দের সঙ্গে প্রতারণা করছেন। ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে তিনি এ ভুয়া চিকিৎসার তথ্য জানানোর পর রাতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।

এসময় তার চিকিৎসালয় থেকে বেশ কিছু লিফলেট উদ্ধার করা হয়। পরে তাকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪৪ ধারায় তাকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের রায় দেয়া হয়।