কান্দাহারের পর তালেবানের দখলে লস্করগাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত : শুক্রবার ১৩ আগস্ট, ২০২১ /

আফগানিস্তানের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর কান্দাহার দখলের পর দক্ষিণাঞ্চলীয় হেলমান্দ প্রদেশের রাজধানী লস্করগাহ দখল করেছে তালেবান। দেশটির একটি নিরাপত্তা সূত্র শুক্রবার এ তথ্য জানিয়েছে। তালেবানের পক্ষ থেকেও এমন দাবি করা হয়েছে।
আফগানিস্তানের একই নিরাপত্তা সূত্র জানায়, তালেবানের সঙ্গে সমঝোতার পর সেনাবাহিনী ও সরকারি কর্মকর্তারা লস্করগাহ শহর ত্যাগ করেছেন। খবর বিবিসির।
তালেবান আজই আফগানিস্তানের দ্বিতীয় বৃহত্তম কান্দাহার শহর দখল করে। তালেবানের এক মুখপাত্র টুইট করে বলেন, কান্দাহার সম্পূর্ণভাবে জয় করা হয়েছে। তালেবান যোদ্ধারা শহরের শহীদ চত্বরে পৌঁছে গেছে।
স্থানীয় এক বাসিন্দাও কান্দাহার তালেবানের দখলে যাওয়ার তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, শহর থেকে গণহারে সরকারি বাহিনী প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে।
একসময় কান্দাহার তালেবানের শক্ত ঘাঁটি ছিল। কৌশলগতভাবে শহরটির যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে। তাই শহরটির দখল তালেবানের জন্য একটা বড় জয় হিসেবে দেখা হচ্ছে। লস্করগাহও গুরুত্বপূর্ণ শহর হিসেবে বিবেচিত।
আফগানিস্তানে মোট ৩৪টি প্রদেশ রয়েছে। এর মধ্যে অন্তত ১৪টির রাজধানী শহর দখলে নেওয়ার দাবি করেছে তালেবান।
বিবিসি জানায়, আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলের অধিকাংশ এলাকাই এখন তালেবানের নিয়ন্ত্রণে। দেশটির আঞ্চলিক রাজধানীগুলোর এক-তৃতীয়াংশ এখন তালেবানের দখলে।
তালেবান যে গতিতে একের পর এলাকা দখল করছে, তাতে যেকোনো সময় আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের পতন ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :