কালবৈশাখী ঝড়ে ময়মনসিংহে তিনজন নিহত

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : রবিবার ১৯ এপ্রিল, ২০১৫ /

FLB-19ময়মনসিংহঃ ময়মনসিংহ জেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া কালবৈশাখী ঝড়ের তান্ডব ও বজ্রপাতে তিনজন নিহত এবং শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। ঝড়ের সময় গাছের নিচে চাপা পড়ে মুক্তাগাছা উপজেলার সন্তোষপুর পূর্বপাড়ায় জালাল উদ্দিন (৩০) ও ফুলবাড়িয়ার উপজেলায় রাধাকানাইয়ে আব্দুল করিম (৪০) ও বজ্রপাতে ত্রিশালের বালিপাড়ায় ইলিয়াস আলী (৩২) নামে একজন মারা যায়। ঝড়ে ময়মনসিংহ সদর, গফরগাঁও, ত্রিশাল উপজেলার কয়েক শ ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত ও কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিধ্বস্ত হয়েছে।

গতরাত সাড়ে ১১ টার দিকে জেলার ওপর দিয়ে কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যায়। প্রবল বাতাসে শত শত ঘরবাড়ি ও কয়েক হাজার গাছ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিধ্বস্ত হয়। ঝড়ের সময় বিদ্যুত সঞ্চালন লাইন ছিড়ে যায় এবং কিছু বৈদ্যুতিক খুটি পড়ে যায়। ঝড়ের পর শহরের কিছু কিছু এলাকায় বিদ্যুত স্বাভাবিক হলেও উপজেলা পর্যায়ে এখনো বিদ্যুত স্বাভাবিক হয়নি।

মুক্তাগাছা প্রতিনিধি জানান, মুক্তাগাছা উপজেলার সন্তোষপুর পূর্বপাড়ায় ঝড়ের সময় কাঁঠাল গাছের নিচে চাপা পড়ে আব্দুল কাদিরের ছেলে জালাল উদ্দিন (৩০) মারা গেয়ে। ঝড়ের কবলে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়। কমপক্ষে ২০০ ঘরবাড়ি ও কয়েক হাজার গাছপালা বিধ্বস্ত হয়েছে। উপজেলার দাওগাঁও, কাশিমপুর, বাশাটি ও খেরুয়াজানি ইউনিয়নের ক্ষয়ক্ষতি বেশি হয়েছে।

ফুলবাড়ীয়া প্রতিনিধি জানান, শনিবার রাত সাড়ে ১১টায় কাল বৈশাখী ঝড়ে ফুলবাড়ীয়া উপজেলার রাধাকানাই বাজারে বট গাছ উপড়ে ঘর চাপায় আ. করিম (৪০) নামের একজন নিহত হয়েছে। এসময় ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল করিম চৌধুরী আহত হয়েছে অন্তত ১০জন।

শতবর্ষ উর্ধ্বের পুরাতন বট গাছটি ঝড়ে উল্টে গেলে ৬/৭টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্থ হয়। ঘরে থাকা দোকান মালিক, ইউপি চেয়ারম্যান, বাজারকারীরা ঝড়ের কবলে পড়লে এ ঘটনা ঘটে। এছাড়া উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে গাছপালা কাঁচা ঘরবাড়ী বোরো ফসল ক্ষতি গ্রস্ত হয়েছে।

ইউএনও বনানী বিশ্বাস এবং থানা অফিসার ইনচার্জ রিফাত খান রাজিব ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতা করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বনানী বিশ্বাস জানান, প্রাথমিক ভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান জানা না গেলেও ঝড়ে ক্ষতি হয়েছে বলে তিনি জানান।

ত্রিশাল প্রতিনিধি জানান, ঝড়ের সময় বজ্রপাতে উপজেলার বালিপাড়ায় ইলিয়াস আলী (৩২) নামে একজন মারা যায়। সে একই গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে। ত্রিশালের ঝড়ের পর থেকে বিদ্যুত বিচ্ছিন্ন রয়েছে। ত্রিশাল-ফুলবাড়িয়া সড়কের বিভিন্নস্থানে গাছ উপড়ে পড়ায় যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। বৈলরের একটি মাদরাসার চালা ঝড়ে উড়ে গেছে।

গফরগাঁওয়ের দক্ষিণাঞ্চলের বারইহাটি, দত্তেরবাজার, নিগুয়ারি ইউনিয়নের বহু ঘরবাড়ি ক্ষতি হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

আপনার মতামত লিখুন :