কিরগিজদের হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের মেয়েরা

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : শনিবার ২৭ এপ্রিল, ২০১৯ /

ম্যাচটা ছিল গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার। কারণ এক ম্যাচ হাতে রেখে আগে থেকেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ ও কিরগিজস্তানের। আর চ্যাম্পিয়ন হতে বাংলাদেশের দরকার ছিল কমপক্ষে ড্র। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কিরগিজদের ২-১ গোলে হারিয়ে বঙ্গমাতা আন্তর্জাতিক অনূর্ধ্ব-১৯ ফুটবল টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে গ্রুপ চ্যাম্পিয়নই হলো বাংলাদেশ। বাংলাদেশের পক্ষে একটি করে গোল করেছেন সানজীদা আক্তার ও কৃষ্ণা রানী সরকার।

শুরুটা ছিল রোমাঞ্চ জাগিয়ে। ২৯ সেকেন্ডেই গোল করে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ।

৩৭ মিনিটে বদলি মার্জিয়ার শট ক্রসবারে লেগে বাইরে চলে যায়। ৪৪ মিনিটে বাম প্রান্ত থেকে মার্জিয়ার ক্রস গোলমুখে ফাঁকায় পেয়ে সানজীদা বাইরে মারেন। বিরতিতে যাওয়ার আগে মারিয়া মান্দার থ্রু থেকে বক্সের মধ্যে বল ধরে মার্জিয়া কিরগিজস্তানের দুই সেন্টারব্যাককে ইনসাইড -আউটসাইড ডজে বোকা বানিয়েও বাইরে মারেন। এরই মাঝে ৫৯ মিনিটে ২-০ করেন কৃষ্ণা। রাইট উইঙ্গার সানজীদা ডান প্রান্ত দিয়ে তেড়েফুঁড়ে ঢুকে ক্রস করলে কিরগিজ গোলরক্ষকের হাত ফসকে বের হয়ে যায়। পাশেই দাঁড়িয়ে থাকা কৃষ্ণা দেখেশুনে জালে জড়াতে কোনো ভুলই করেননি। ৬৮ মিনিটে গোলরক্ষক রুপনার ভুলে ব্যবধান কমায় কিরগিজস্তান। বক্সের ডান প্রান্ত থেকে আখমাতকুলুভার শট রুপনার হাত ফসকে জালে জড়িয়ে যায়। কিন্তু এর পরেও বেশ কয়েকবার গোল ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ এসেছিল বাংলাদেশের সামনে। কিন্তু শেষ হয়নি। ব্যবধান বাড়েনি।

বাংলাদেশ যদি ৫-৬ গোলেও জয় পেত, অবাক হওয়ার কিছুই ছিল না। ৩-৪-৩ ফরমেশনে শুরু করা বাংলাদেশকে দেখে বেশির ভাগ সময় মনে হচ্ছিল তারা ২-২-৬ ফরমেশনে খেলছে। শেষ বাঁশি পর্যন্ত আক্রমণ ও প্রতিপক্ষের ওপর প্রেসিংটা চালিয়ে গেছে দল। কিন্তু অসংখ্য গোল মিসের খেসারতটা বাংলাদেশ দিয়েছে স্কোরলাইন বড় করতে না পেরে।

বয়সভিত্তিক পর্যায়ে শেষ মুখোমুখিতে এই বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামেই ২০১৬ সালে এএফসি অনূর্ধ্ব- ১৬ বাছাইপর্বে ১০ গোল হজম করেছিল কিরগিজস্তান।

আপনার মতামত লিখুন :