ক‌রোনা মোকা‌বেলায় সি‌টি মেয়র টিটুর সহ‌যোদ্ধা অ‌নির বিরামহীন পথচলা

সাজ্জাতুল ইসলাম সাজ্জাত
প্রকাশিত : সোমবার ২৭ এপ্রিল, ২০২০ /

ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ময়মনসিংহ মহানগর ছাত্রলীগ নেতা নও‌শেল আহ‌মেদ অ‌নি । বর্তমান প্রেক্ষাপ‌টে তি‌নি ময়মন‌সিংহ মহানগরীর ক্লিন ই‌মেজদারী উ‌দিয়মান একজন সমাজ সেবক। প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় ময়মন‌সিংহ সি‌টি ক‌র্পো‌রেশনের মেয়র মো: ইকরামুল হক টিটুর সহ‌যোদ্ধা হিসা‌বে বিরামহীনভাবে ছুটে চলেছেন নগরীর কর্মহীন, অসহায় ও নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের পাশে। এই অবস্থার শুরু থে‌কেই সরকা‌রি ত্রাণ সহায়তার পাশাপা‌শি প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা ও ময়মন‌সিংহ সি‌টি ক‌র্পো‌রেশ‌নের মেয়র ইকরামুল হক টিটুর নি‌র্শেশনায় ও সহ‌যোগীতায় কখনো নিজ অর্থায়নে, কখনো কোন দানশীল ব্যক্তির অর্থায়‌নে নগরীর প্রায় সহাস্রা‌ধিক খেটেখাওয়া ও নিম্ন আয়ের মানুষ‌দের দুয়া‌রে হা‌জির হ‌য়ে‌ছেন খাদ্যসামগ্রী নিয়ে।


করোনা মোকাবেলায় শক্ত হাতে অসহায় কর্মহীন ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে গিয়ে তিনি ব্যতিক্রমী পথচলা শুরু করেছেন। এখন লড়ছেন করোনা ভাইরাস নামক এক মহামারি যুদ্ধের সাথে। এই মহামারির কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া নগরীর বি‌ভিন্ন ওয়া‌র্ডে দুস্থ ও নিম্ন আ‌য়েন মানুষের ক্ষুধা নিবারণে তিনি প্রাণপন চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছেন। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ছুটে চলছেন নগরীর এক প্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্তে। সবকিছু ছাড়িয়ে মহানগ‌রের বি‌ভিন্ন মহল্লায় তাঁর পরিচয় নতুন এক মানবতার ফেরিওয়ালা।

বর্তমান পরিস্থিতিতে যানবাহনসহ সকল দোকানপাট বন্ধ থাকায় গৃহবন্দি হয়ে পড়েছেন নগরীর কয়েক সহস্রাধিক কর্মজীবী ও নিম্ন আয়ের মানুষ। যার কারণে সবাই ক্ষুধার জ্বালায় মানবেতর জীবনযাপন করছেন। সেই অসহায় ও কর্মহীন মানুষের কষ্টের কথা চিন্তা করে মানবিক উদ্যোগ গ্রহণ করেন নগর পিতা ইকরামূল হক টিটু। সবার খাবা‌রের ব্যবস্থা ক‌রেন। তাঁর ডাকে সাড়া দিয়ে ছাত্রলীগ নেতার অ‌নি ঝা‌পি‌য়ে প‌ড়েন ক‌রোনা যু‌দ্ধে।

অ‌নি ‌সি‌টি মেয়র টি‌টুর সহ‌যোগীতায় ও নিজ উ‌দ্যো‌গে তাঁর আত্মীয়-স্বজন এবং শোভাকাঙ্খীদের কাছ থেকেও খাদ্য সহায়তার ব্যবস্থা করেন। এই খাদ্য তার ‌নেতৃ‌ত্বে মহানগর ছাত্রলী‌গের নেতাকমীরা নগরীর বিভিন্ন মহল্লার কর্মহীন, দিনমজুর, রিকশাচালক, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও দুঃস্থ মানুষের বাড়িতে পৌঁছে দিচ্ছেন। খাদ্য সহায়তার মধ্যে রয়েছে চাল, আলু, মসুরী ডাল, পেঁয়াজ, তেল, সাবান ও সব‌জি। তা‌দের দেয়া এই খাদ্য সহায়তায় হাসি ফুটল মহানগরীর সহস্রাধিক পরিবারে।

ছাত্রলীগ নেতা অ‌নির এমন উদ্যোগকে নগরীর সর্বস্তরের মানুষ প্রশংসার চোখে দেখছেন। পাশাপাশি করোনা প্রতিরোধে সরকারের প্রতিটি নির্দেশনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে মানুষদের সচেতন করে তুলছেন। করোনার সংক্রমণ রোধে নগরীর বিভিন্ন স্থানে হাত ধৌত করারও ব্যবস্থা করেছেন। প্র‌তি‌দিন ভো‌রে ট্রা‌কে ক‌রে সব‌জি নি‌য়ে বিনামূ‌ল্যে নিজ হা‌তে বিতরণ কর‌ছেন বি‌ভিন্ন মহল্লায়। এছাড়াও সম্প্র‌তি নওশেল আহমেদ অনির নেতৃত্বে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা নগরীর বি‌ভিন্ন এলাকায় কৃষকের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। অনির নেতৃত্বে মাঠ কৃষ‌কের ধান কাটা অব্যাহত আ‌ছে।

আলাপকালে নগরীর অ‌নে‌কেই বলেন, যেখানে বিপদ, সেখানেই অ‌নি‌কে দেখতে পাই। আমরা তাঁর মতো একজন মানব দরদী নেতা পে‌য়ে ধন্য। মহানগর ছাত্রলীগ নেতা নও‌শেল আহ‌মেদ অ‌নি নেতৃ‌ত্বে প্র‌তি‌দিন ধারাবা‌হিক ভা‌বে নগরীর বি‌ভিন্ন এলাকায় হতদরিদ্র ও নিম্ন মধ্যবিত্তদের মা‌ঝে খাবা‌রের পাশাপা‌শি বিনামূ‌ল্যে বিষমুক্ত সব‌জিও বিতরণ করা হ‌চ্ছে। আর তার সা‌থে স্বেচ্ছা‌সেবক‌ হি‌সে‌বে সহ‌যোগীতা কর‌ছে ছাত্রলীগের বি‌ভিন্ন পর্যা‌য়ের নেতাকমীরা। করোনা দুর্দিনে এই খাদ্য সহায়তা পেয়ে ছাত্রলীগ নেতা নও‌শেল আহ‌মেদ অ‌নির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন দরিদ্র মানুষেরা।

‌বিনামূ‌ল্যে সব‌জি বিতরণ


নও‌শেল আহ‌মেদ অ‌নি জানান, ‘বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে করোনা ভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করেছে। এ থেকে রেহাই পেতে জনসচেতনতার কোন বিকল্প নেই। তাছাড়া সরকারি নির্দেশনায় সবকিছু বন্ধ থাকায় মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তাই তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সি‌টি মেয়র মো: ইকরামুল হক টিটুর নি‌র্দেশনায় ও সহ‌যোগীতায় আমার এ ক্ষুদ্র প্রচেষ্ঠামাত্র। ইতিমধ্যে কর্মহীন অসহায় সহস্রাধিক মানুষের মাঝে মানবিক কারণে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।’ এটি চলমান রয়েছে। এ ধরণের খাদ্য সহায়তা প্রদান পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। তিনি আরো বলেন, এই মহাদুর্যোগের সময় প্রবাসীসহ সমাজের বিত্তশালী ব্যক্তি লোকদের এগিয়ে আসা জরুরি।

আপনার মতামত লিখুন :