খালিয়াজুরিতে কঠোর লকডাউনে গরুর হাট, কমিটির সভাপতিকে জরিমানা

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : রবিবার ৪ জুলাই, ২০২১ /

নেত্রকোনার হাওরাঞ্চল খালিয়াজুরির লেপসিয়ায় কঠোর বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে শনিবার (৩ জুলাই) সকাল থেকে বসে হাট। এতে ওই উপজেলাসহ আশপাশের কয়েকটি উপজেলার প্রায় লক্ষাধিক মানুষের সমাগম ঘটে। কিন্তু সেখানে স্বাস্থ্যবিধি মানতে দেখা যায়নি। অনেকে মুখে মাস্ক পরেননি।

খবর পেয়ে বিকেলে সহাকারী কমিশনার (ভূমি) নাহিদ হাসান খান অভিযান পরিচালনা করেন। পরে তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বাজার কমিটির সভাপতিসহ কয়েকজন দোকানি ও ক্রেতাকে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

বাজার কমিটি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, লেপসিয়া বাজারে সপ্তাহের শনিবার বড় ধরনের হাট বসে। ওই হাটে লেপসিয়া নৌঘাটে প্রায় সহস্রাধিক নৌকায় করে খালিয়াজুরি ছাড়াও মদন, মোহনগঞ্জ, সুনামগঞ্জের দিরাই, শাল্লা, জামালগঞ্জ, ধরমপাশাসহ আশপাশের উপজেলার প্রায় লক্ষাধিক মানুষের সমাগম ঘটে।

স্থানীয় কয়েকজন জানান, শনিবার সকাল ১০টা থেকে হাট বসে। হাটে পূর্বের ন্যায় লোকজনের সমাগম ঘটে। ওই হাটে বাঁশ, কাঠ, গরু-ছাগল, পোশাক, মাছ, সবজিসহ প্রায় সব ধরনের প্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী বিক্রি শুরু হয়। স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে লোকজনের ভিড় বাড়তে থাকে। হাটসংলগ্ন লিপসা পুলিশ ফাঁড়ি ও চাকুয়া ইউনিয়ন পরিষদের কার্যালয় রয়েছে।

কিন্তু অভিযোগ রয়েছে কার্যালয়ের লোকজন বিষয়টি এড়িয়ে যান। পরে খবর পেয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাহিদ হাসান খান বিকেল ৫টার দিকে অভিযান পরিচালনা করে হাট ভেঙে দেন। এ সময় তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে লেপসিয়া হাট বণিক সমিতির সভাপতি কুদ্দুস মিয়াকে পাঁচ হাজার টাকাসহ আটটি মামলায় মোট ১২ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

বণিক সমিতির সভাপতি কুদ্দুস মিয়া বলেন, ‘এই হাটে জেলা ছাড়াও সুনামগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলা থেকে প্রচুর লোকজন বাজার করতে আসেন। প্রতি সপ্তাহের শনিবার হাট বসে। তাই বাজার করতে আসা লোকজন ও ব্যবসায়ীদের জানানো সম্ভব হয়নি। কারণ, লকডাউন শুরু হয়েছে বৃহস্পতিবার থেকে। আজ বাজার জমে গেছিল। আগামী শনিবার থেকে আর বাজার বসবে না।’

জানতে চাইলে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও খালিয়াজুরি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘বিষয়টি জেনে দুপুরে লোক পাঠিয়ে বাজারটি ভেঙে দেয়ার কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু ক্রেতা-বিক্রেতারা তা মানতে চাননি।’

সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাহিদ হাসান খান বলেন, ‘খবর পেয়ে ওই হাটে অভিযান চালিয়ে বাজারটি ভেঙে দেয়া হয়েছে। আটটি মামলায় বাজার কমিটির সভাপতি, পাঁচজন ব্যবসায়ীসহ দুজন ক্রেতাকে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মানতে মাইকিং করে স্থানীয়দের সতর্ক করাসহ মাস্ক বিতরণ করা হয়।’

আপনার মতামত লিখুন :