গৌরীপুরে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে যাকাতের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

মশিউর রহমান কাউসার
প্রকাশিত : শনিবার ২৫ মে, ২০১৯ /

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সুপারভাইজার ছ্যাইয়েদুল ইসলামের বিরুদ্ধে যাকাতের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ওঠেছে।

তিনি গত বছর রমযান মাসে গৌরীপুর উপজেলা থেকে লক্ষাধিক টাকা যাকাত আদায় করে জেলা যাকাত ফান্ডে জমা দিয়েছেন মাত্র ৪০ হাজার ১ শ টাকা।

বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের শিক্ষকসহ স্থানীয় লোকজনের মাঝে এ নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করেছে।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের স্থানীয় কয়েকজন শিক্ষক জানান, গত বছর রমযান মাসে গৌরীপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সুপারভাইজার ছ্যাইয়েদুল ইসলাম যাকাত ফান্ডের জন্য এ উপজেলার ১৫২ জন শিক্ষকের কাছ থেকে রসিদমূলে ৫শ টাকা করে ৭৬ হাজার টাকা আদায় করেন। এছাড়া চাকুরিজীবী, সমাজের বিত্তবান ব্যক্তি, স্থানীয় মিল ফ্যাক্টরি থেকেও যাকাত ফান্ডের জন্য টাকা আদায় করেন তিনি।

অতিসম্প্রতি তারা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের জেলা অফিস সূত্রে জানতে পারেন গত রমযান মাসে গৌরীপুর উপজেলা থেকে যাকাত ফান্ডে জমা হয়েছে মাত্র ৪০ হাজার ১ শ টাকা। এ তথ্যটি ফাঁস হওয়ার পর এ নিয়ে গৌরীপুরে সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করে।

এছাড়া ওই সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে নিয়োগ বানিজ্য, অফিস ফাঁকিসহ নানা অনিয়ম-দুর্নীতি ও অর্থ আত্মাসাতের অভিযোগ রয়েছে বলে শিক্ষকরা জানান। তারা যাকাতের টাকা আত্মসাতকারী দুর্নীতিবাজ ওই সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি করেন।

প্রতিবেদকের পরিচয় দিয়ে এ ঘটনার মন্তব্য জানতে গৌরীপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সুপারভাইজার ছ্যাইয়েদুল ইসলামের ০১৭৭৫০৯৬৪৯৭ এ নাম্বারে বৃহস্পতিবার কল করা হলে অপর প্রান্ত থেকে তিনি বলেন, আমি জেলা অফিসের মিটিংয়ে আছি পরে কথা বলবেন।

এরপর শুক্রবার ও শনিবার একাধিকবার উনার নাম্মারে কল করা হলেও অপরপ্রান্ত থেকে কেউ রিসিভ করেননি।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন ময়মনসিংহ জেলা অফিসের হিসাব রক্ষক কর্মকর্তা মুন্তাজ আলী জানান, গত বছর রমযান মাসে গৌরীপুর উপজেলা থেকে যাকাত ফান্ডে জমা হয়েছে ৪০ হাজার ১শ টাকা মাত্র।

এ বিষয়ে মন্তব্য জানতে চাইলে গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারহানা করিম জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি। অভিযোগ প্রমাণিত হলে এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :