গৌরীপুরে গভীর রাতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে প্রায় ৩০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

মশিউর রহমান কাউসার
প্রকাশিত : শুক্রবার ২৮ মে, ২০২১ /

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে গভীর রাতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় দুটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, গোডাউন ও বাাসা পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার (২৭ মে) দিনগত রাত দেড় টার দিকে গৌরীপুর পৌর শহরের হারুনপার্ক এলাকায় এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এসময় ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের প্রচেষ্টায় অগ্নিকান্ড থেকে রক্ষা পায় গৌরীপুর জনতা ব্যাংকের শাখা কার্যালয়। অগ্নিকান্ডে প্রায় ৩০ লাখ টাকার ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। এতে কোন হতা-হতের ঘটনা ঘটেনি।

অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত মনোহারী দোকানদার আশিক বিশ^াস (৩৮) জানান, দোকানের পেছনে তার বাসা। ঘটনার সময় তিনি বাসায় ঘুমন্ত অবস্থায় ছিলেন। হঠাৎ আগুনের তাপে তার ঘুম ভেঙ্গে যায়। তখন ঘুম থেকে তার বাসা সংলগ্ন স্থানীয় হেলাল উদ্দিনের চটের বস্তার গোডাউনের ঘরে দাউ দাউ করে আগুন জ¦লতে দেখেন। মূহুর্তেই সে আগুন ছড়িয়ে পড়ে পাশর্^বর্তী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, গোডাউন ও বাসায়। এসময় তাদের ডাক চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন। কিন্তু ভয়ংকর এ আগুনের লেলিহান শিখা অনেক উপরে উঠায় স্থানীয়রা নিয়ন্ত্রণ করতে পারছিলেন না। খবর পেয়ে পাশ্র্ববর্তী ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেন বলে জানান আশিক বিশ্বাস।

তিনি বলেন, অগ্নিকান্ডে তার মনোহারী দোকান ঘর এবং দোকানের মালামাল ও নগদ টাকা পুড়ে গিয়ে প্রায় ৪ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া তার ভাই পলাশ বিশ্বাসের ইলেকট্রনিক পন্যের গোডাউনে ফ্রিজ, পাখা, মটর সাইকেল ও বাসাসহ সম্পূর্ণ মালামাল আগুনের ভস্মিভূত হয়ে প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। আগুনে তার অপর ভাই স্বপন বিশ^াসের একটি ঘর, স্থানীয় আনোয়ার হোসেনের স্টুডেন্ট লাইব্রেরীর সম্পূর্ণ মালামাল, হেলাল উদ্দিনের চটের বস্তার গোডাউন, আক্কাছ ভূইয়ার আংশিক গোডাউন পুড়ে গিয়ে তাদের প্রায় সব মিলিয়ে ৩০ লাখ টাকার ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে।
আশিক বিশ্বাসের ধারনা চটের বস্তার গোডাউন থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। এ চটের বস্তার গোডাউনে তিনি প্রথমে আগুন জ¦লতে দেখেন বলে সাংবাদিকদের জানান।

স্টুডেন্ট লাইব্রেরীর মালিক আনোয়ার হোসেন সাংবাদিকদের জানান, আগুনে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সম্পূর্ণ মালামাল পুড়ে গিয়ে প্রায় ৮ লাখ ক্ষতি হয়েছে।

স্থানীয় বেগ প্লাজার মালিক সাংবাদিক বেগ ফারুক আহাম্মদ জানান, ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের অক্লান্ত প্রচেষ্টায় দ্রæত আগুন নিয়ন্ত্রণে আসায় বেগ প্লাজায় দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত জনতা ব্যাংকের গৌরীপুর শাখার কার্যালয়সহ অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অগ্নিকান্ড থেকে রক্ষা পেয়েছে। আগুনে তার বেগ প্লাজা ভবনের স্যানিটারী পাইপ, সার্ভিস লাইনের তার ও আংশিক জানালা পুড়ে গেছে বলে জানান তিনি।

ঈশ্বরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ইনচার্জ দেলোয়ার হোসেন জানান, স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিটের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌছে ২০ মিনিটে মূল আগুন আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন। আগুন নিয়ন্ত্রণের পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে তাদের সময় লাগে প্রায় ১ ঘন্টা ৪৮ মিনিট। অগ্নিকান্ডে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। এ অগ্নিকান্ডে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে। তবে ক্ষয় ক্ষতির পরিমাণ আরও বাড়তে পারে বলে তিনি জানান।

এদিকে খবর পেয়ে গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। এসময় ঘটনাস্থল থেকে লোকজনদের নিরাপদ দুরত্বে সরিয়ে নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে সহযোগিতা করেন পুলিশ সদস্যরা।

গৌরীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ মোফাজ্জল হোসেন খান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাসান মারুফ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাসান মারুফ সাংবাদিকদের জানান, অগ্নিকান্ডে ক্ষয় ক্ষতির পরিমাণ নির্ণয়ের পর ভুক্তভোগীদের সরকারিভাবে সহযোগিতা করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :