গৌরীপুরে গ্রাম্য সালিশের পর প্রতিপক্ষের হামলায় আহত কৃষকের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশিত : সোমবার ২২ জুন, ২০২০ /

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে গ্রাম্য সালিশের পর প্রতিপক্ষের হামলায় আহত স্থানীয় কৃষক চাঁন মিয়া (৫৫) মারা গেছেন। রবিবার (২১ জুন) সন্ধ্যায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এর আগে ওইদিন দুপুরে এ উপজেলার সিধলা ইউনিয়নে বারোআনী গ্রামে প্রতিপক্ষ লাল চাঁনের নেতৃত্বে হামলা গুরুতর আহত হন চাঁন মিয়া। নিহত কৃষক উপজেলার সিধলা ইউনিয়নের বারোআনী গ্রামের শমসের আলীর ছেলে। এ হামলায় আরও আহত হন চাঁন মিয়ার ভাই তোতা মিয়া ও ছেলে রুবেল মিয়া।

স্থানীয় ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, উল্লেখিত গ্রামের চাঁন মিয়ার সঙ্গে একই গ্রামের মৃত মাতব্বর আলীর ছেলে প্রতিবেশী লাল চাঁনের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। রবিবার সকালে এ নিয়ে এলাকায় উভয়পক্ষের উপস্থিতিতে গ্রাম্য সালিশের আয়োজন করা হয়। এ সালিশে দীর্ঘক্ষণ আলাপ-আলোচনা পর উভয়পক্ষের সম্মতিতে বিরোধটি আপোস মিমাংসা করে দেন স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা। কিন্তু সালিশ শেষে গণ্যমান্য ব্যক্তিরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করতেই উভয় পক্ষের মাঝে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে লাল চাঁন ও তার লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে চাঁন মিয়ার ওপর হামলা চালায়। এ হামলায় রক্তাক্ত জখম হন চাঁন মিয়া ও তার ছেলে রুবেল মিয়া এবং ভাই তোতা মিয়া।
গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বোরহান উদ্দিন জানান, হামলার পরপরই অপরাধীরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। তাদের ধরতে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

আপনার মতামত লিখুন :