গৌরীপুরে ছাত্রলীগের সাবেক নেতা মামুনকে কুপিয়ে জখম

নিজস্ব প্রতিবেধক
প্রকাশিত : মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল, ২০২১ /

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইকরাম হোসেন খান মামুন (৪৪) কে কুপিয়ে জখম করেছে একদল সন্ত্রাসী। সোমবার (১২ এপ্রিল) রাত ৮ টার দিকে গৌরীপুর পৌর শহরে গার্লস স্কুল রোড এলাকায় এ হামলার ঘটনাটি ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় মামুন বর্তমানে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আহত মামুন সাংবাদিকদের জানান, ঘটনারদিন সন্ধ্যায় তাঁর ছেলের নাকের এক্সরে রিপোর্ট আনতে কালিপুর বাজার পশ্চিম লাইন এলাকায় সোমা প্যাথলজিতে গিয়েছিলেন তিনি। এসময় এ প্যাথলজির পরিচালক আইয়ূব খান রিপোর্ট দিতে গড়িমসি শুরু করেন। এক্সরে রিপোর্ট না পেয়ে তখন মোবাইল ক্যামেরা দিয়ে প্যাথলজির ভেতরে বিভিন্ন অসঙ্গতি ও অনিয়মের ভিডিও ধারন করেন তিনি। এতে আইয়ূব খান ক্ষিপ্ত হয়ে তার সাথে তুমুল বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। একপর্যায়ে আইয়ূব খান ও তার ভাই ঈসা খানসহ কয়েকজন প্যাথলজির ভিতরে তাকে মারধর করেন। এ মারধরের ঘটনায় তাৎক্ষণিক তিনি থানায় গিয়ে ওসি’র কাছে মৌখিকভাবে অভিযোগ করেন।

এদিকে থানায় অভিযোগ করে বাসায় ফেরার পথে উল্লেখিত গার্লস স্কুল রোড এলাকায় আইয়ূব খানের ভাই মোখলেছ ও ভাতিজা মিঠুর নেতৃত্বে ১০ জন অতর্কিতে হামলা চালিয়ে রামদা দিয়ে কুপিয়ে রক্তাত্ব জখম করে তাকে।
সোমা প্যাথলজির পরিচালক আইয়ূব খান জানান, ঘটনারদিন সন্ধ্যার পর প্যাথলজিতে ডাক্তার রোগী দেখছিলেন। এসময় মামুন প্যাথলজিতে এসে তার কাছে অযৌক্তিক টাকা দাবি করেন। টাকা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করে তিনি তখন মামুনকে পরে দেখা করতে বলেন। এতে মামুন ক্ষিপ্ত হয়ে তার হাতে থাকা মোবাইল দিয়ে ভিডিও ধারন শুরু করেন। এ নিয়ে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে মামুন হাতুড়ি দিয়ে তার ভাই ঈসা খানকে আঘাত করে ক্যাশ বাক্স থেকে নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যান। এ হামলার ঘটনায় ওইদিন রাতে তিনি থানায় অভিযোগ করেছেন বলে জানান তিনি।
মামুনের ওপর পরবর্তীতে সন্ত্রাসী হামলার বিষয়ে জানতে চাইতে আইয়ূব খান বলেন, মামুনের ওপর যখন হামলা হয়েছে তখন আমরা সবাই থানায় উপস্থিত ছিলাম। কে বা কারা মামুনকে কুপিয়েছে এ বিষয়ে কোন কিছু জানেন না বলে সাংবাদিকদের জানান তিনি।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী জানান, হামলার ঘটনায় মামুন মৌখিকভাবে পুলিশকে জানিয়েছেন। অপরদিকে সোমা প্যাথলজির পক্ষে মামুনের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। তদন্তপূর্বক এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান তিনি। #

আপনার মতামত লিখুন :