গৌরীপুরে ঝূঁকিপূর্ণ এলজিইডি’র দুটি ব্রিজ, প্রাণহানির আশংকা

মশিউর রহমান কাউসার
প্রকাশিত : বুধবার ২৫ আগস্ট, ২০২১ /

একটি ব্রিজের গার্ডারে দেখা দিয়েছে ফাটল, খসে পড়েছে পলেস্তারা ও ঢালাই। অন্যটির ভেঙ্গে পড়েছে রেলিং। ব্রিজ দুটি যে কোন সময় ভেঙ্গে গিয়ে ঘটতে পারে প্রাণহানি। তবুও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এ দুটি ব্রিজ দিয়ে চলাচল করে বিভিন্ন যানবাহন ও দশ গ্রামের শত শত মানুষ। ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার রামগোপালপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে পাঁচাশী-ধূরুয়া পাকা সড়কে আপনখালী ও গুইলাখালী খালের উপর এলজিইডি’র নির্মিত ব্রিজের চিত্র এটি।

স্থানীয় কয়েকজন জানান, রামগোপাল ইউনিয়নের পাঁচাশী, বিশ্বনাথপুর, বেরাটি, কান্দুলিয়া, তেরশিরা, পলাশকান্দা, রোকন্দীপুর, বামনপুর, গিদ্ধিরপুরসহ ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার কয়েক গ্রামের মানুষের গৌরীপুর উপজেলা সদর ও ময়মনসিংহ জেলা সদরের সাথে যোগাযোগের একমাত্র সড়ক হচ্ছে ধূরুয়া-পাঁচাশী টু রামগোপালপুর বাসস্ট্যান্ট সড়ক। আর সড়কেই উল্লেখিত দুটি ব্রিজের অবস্থান। প্রতিদিন বিভিন্ন যানবাহন ও শত শত মানুষ এই ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজগুলোর উপর দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করে থাকে।

রামগোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম মাস্টার জানান, পুরোনো এই ব্রিজগুলো দীর্ঘ বছর ধরে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। স্থানীয় লোকজন এ ব্রিজ দুটি ভেঙ্গে নতুন ব্রিজ নির্মাণের দাবি করে আসলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কোন উদ্যোগ পরিলক্ষিত হচ্ছেনা। বর্তমানে ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ দিয়ে ভারী যান চলাচল বন্ধ রয়েছে বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা প্রকৌশলী আবু সালেহ মোঃ ওয়াহেদুল হক সাংবাদিকদের জানান, সার্ভেয়ার আতিয়ার সাহেবের সাথে কথা বলেন উনি এ বিষয়ে জানেন।

গৌরীপুর এলজিইডি অফিসের সার্ভেয়ার আতিয়ার রহমান সাংবাদিকদের জানান, উল্লেখিত দুটি ব্রিজ নির্মাণের প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :