গৌরীপুরে ধর্ষণের শিকার চার বছরের শিশু হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছে !

আলম ফরাজী
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ /

অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে হাসপাতালের শিশু বিভাগের বিছানায় কাতরাচ্ছে ধর্ষণের শিকার চার বছর বয়সের শিশু। সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) চকলেট খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে বন্ধু রাকিবের (১৩) সহযোগিতায় ধর্ষণ করে আরেক বন্ধু ইসমাইল (১৪)।

এদিন রাতে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এ শিশুকে। এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাতে গৌরীপুর থানায় দুই জনের নামে মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত দুইজন হচ্ছে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার গাভী শিমুল গ্রামের তারা মিয়ার ছেলে ইসমাইল ও একই গ্রামের হারুন মিয়ার ছেলে রাকিবুল ইসলাম।

শিশুটির মামা শিশুটির বাবা-মায়ের বরাত দিয়ে সাংবাদিকদের জানান, শিশুটির বাবা ঢাকায় রিকশা চালান। মা অন্যের বাড়িতে কাজ করেন। গত সোমবার দুপুরের পর থেকে শিশু কন্যাকে বাড়িতে পাওয়া যাচ্ছিল না। এ অবস্থায় অনেক খোঁজাখুজিও করেও না পেয়ে হঠাৎ দেখতে পান কিছু দূর থেকে শিশুটি কান্নাকাটি করে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে বাড়ির দিকে আসছে। পরে কান্নার ও খুঁড়িয়ে হাটার কারন জানতে চাইলে শিশুটি জানায় পাশের বাড়ির রাকিব চকলেটের লোভ দেখিয়ে একটি জঙ্গলে নিয়ে যায় তাকে। সেখানে ইসমাইল নামে আরেকজন তাকে মুখ চেপে অনৈতিক কর্ম করে। এসময় শিশুটির পা বেয়ে রক্ত ঝরে।

তিনি আরো জানান, ঘটনার পর শিশুটিকে গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। সেখানে গত চারদিন ধরে শিশুটির চিকিৎসা চলছে। বর্তমানে হাসপাতালের বিছানায় শিশুটি যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছে।

শিশুটির বাবা জানান, তাঁর মেয়েকে হাসপাতালে ভর্তির পর গ্রামের একটি চক্র বিচারের নামে কালক্ষেপন করে কোনো ধরনের কার্যক্ষেপ পদক্ষেপ নেয়নি। পরবর্তীতে থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

গৌরীপুর থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ গোলাম মওলা মামলা হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনার সাথে জড়িত দুইজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :