গৌরীপুরে নাশকতার পরিকল্পনাকালে জামাতে ইসলামীর তিন নেতা গ্রেফতার, বিস্ফোরিত ককটেল, জিহাদি বই ও লিফলেট উদ্ধার

মশিউর রহমান কাউসার
প্রকাশিত : সোমবার ৯ মার্চ, ২০২০ /

নাশকতার পরিকল্পনাকালে ময়মনসিংহের গৌরীপুরে বাংলাদেশ জামাতে ইসলামীর স্থানীয় তিন নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় তাদের কাছে থেকে বিভিন্ন জিহাদি বই, লিফলেট ও ঘটনাস্থল থেকে বিস্ফারিত ককটেল উদ্ধার করা হয়েছে।

রবিবার (৮ মার্চ) রাত ১১ টার দিকে গৌরীপুর উপজেলার সিংজানী এলাকায় জামাতে ইসলামীর সূরা সদস্য মোসলেম উদ্দিনের বাড়ির সামনে থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন জামাতে ইসলামীর উপজেলা শাখার সাবেক আমির আবু বক্কর সিদ্দিক (৬৮), সূরা সদস্য মোসলেম উদ্দিন (৩২) ও মোতালেব হোসেন (২৮)।

গৌরীপুর থানার ওসি মোঃ বোরহান উদ্দিন এ বিষয়ে নিশ্চিত করে জানান, ঘটনারদিন রাতে এ উপজেলার সিংজানী গ্রামে হযরত আলীর বাড়ির আঙ্গিনায় স্থানীয় জামাতে ইসলামীর নেতারা মুজিবর্ষকে কেন্দ্র করে নাশকতার পরিকল্পনায় গোপন বৈঠক করছিলেন। খবর পেয়ে গৌরীপুর থানার এসআই উজ্জল মিয়ার নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে তাৎক্ষণিক পুলিশ অভিযান চালান। এদিকে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে জামাতে ইসলামীর ক্যাডাররা পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন তারা।

এসময় পুলিশ উপজেলার দামগাঁও গ্রামের মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে জামাতে ইসলামী উপজেলা শাখার সাবেক আমির আবু বক্কর সিদ্দিক, সিংজানী গ্রামের হযরত আলীর ছেলে সূরা সদস্য মোসলেম উদ্দিন ও মোতালেব হোসেনকে গ্রেফতার করা হলেও অন্যরা পালিয়ে যান।

তিনি আরো জানান, অভিযানকালে ঘটনাস্থল থেকে বিস্ফোরিত ককটেলের খালি কৌউটা, অর্ধশতাধিক জিহাদী বই ও লিফলেট উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা মুজিবর্ষকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন স্থানে নাশকতা সৃষ্টির পরিকল্পনা করছিল বলে জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে সত্যতা স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় গৌরীপুর থানায় মামলা দায়েরর পর পরদিন গ্রেফতারকৃতদের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

ওসি বোরহান উদ্দিন আরো বলেন, এ মামলায় অন্য আসামীরা হলেন- এ উপজেলার কলতাপাড়া এলাকার মৃত রহিম বক্সের ছেলে আব্দুল মালেক (৫১), মৃত আব্দুল হামিদ খানের ছেলে টুটু খা (৫৭), নন্দী গ্রামের মৃত সাবদুলের ছেলে মোঃ মুনসুর (৫২), পুম্বাইল গ্রামের মৃত আজিম উদ্দিন মড়লের ছেলে আব্দুস সামাদ (৫৬), বাশাটির কাছম আলীর ছেলে ফারুক (৪৭), রাজ আলীর ছেলে শাহপরান (৪৫), শিবপুরের মৃত আব্দুল মজিদ বেপারীর ছেলে শাহ আলম (৩৯), জহুর আলীর ছেলে রহুল আমিন (৪১)সহ অজ্ঞাত ১২ জন।

আপনার মতামত লিখুন :