গৌরীপুরে পর্নোগ্রাফির অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

মশিউর রহমান কাউসার
প্রকাশিত : মঙ্গলবার ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ /

বিয়ের প্রলোভনে ১৪ বছরের এক স্থানীয় কিশোরীকে ধর্ষন ও গোসলের ধারনকৃত ভিডিও মোবাইলে ধারন করে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকী দিয়ে বø্যাকমেইল করার চেষ্টা করে আসছিল বখাটে যুবক আকাশ মিয়া (২০)। অভিযোগ পেয়ে ময়মনসিংহের গৌরীপুর থানার পুলিশ ওই বখাটে যুবককে গত বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করে। আকাশ মিয়া গৌরীপুর উপজেলার সিধলা ইউনিয়নের হাসনপুর মধ্যপাড়া গ্রামের বাচ্চু মিয়া ছেলে।

 

মামলার এজাহারে প্রকাশ, ফুফুর বাড়িতে বেড়াতে আসা যাওয়ার সময় গত বছর ওই কিশোরীর পরিচয় হয় আকাশ মিয়ার সঙ্গে। এ পরিচয়ের সূত্র ধরে এক সময় তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একপর্যায়ে ওই কিশোরীকে ১১/০৬/২১ তারিখ রাতে নিজ ঘরে নিয়ে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ করে আকাশ। কিশোরীর বয়স ১৮ পূর্ণ হলে তাদের বিয়ের কাবিন সম্পন্ন করবে এ প্রতিশ্রæতিতে তারা প্রায় ৩ মাস একসঙ্গে বসবাস করে। এসময়ে কিশোরীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ও গোসলের দৃশ্য গোপনে মোবাইলে ভিডিও ধারন করে রাখে আকাশ।

 

পরবর্তীতে কিশোরীকে না জানিয়ে গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করে আকাশ। দ্বিতীয় বিয়ের কথা জানতে পেরে আকাশের সঙ্গে সম্পর্কের ইতি টেনে নিজ বাবার বাড়িতে চলে আসে কিশোরী। এদিকে বাবার বাড়িতে চলে আসার পর কিশোরীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলতে মোবাইলে ধারনকৃত ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকী দিয়ে আসছিল আকাশ।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী কিশোরী বাবা ৪ সেপ্টেম্বর গৌরীপুর থানার আকাশের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন।

 

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খান আব্দুল হালিম সাংবাদিকদের জানান, অভিযোগের পর আকাশকে গ্রেফতার ও তার মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় আকাশের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন এবং পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :