গৌরীপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় একই পরিবারের ৪ জন আহত, গ্রেপ্তার-১

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার ২৩ মে, ২০১৯ /

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার শাহবাজপুর গ্রামে বুধবার (২২ মে) বিকেল ৪ টার দিকে পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষ আলাল (২৮) গংদের হামলায় একই পরিবারের ৪ জন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন শাহবাজপুর গ্রামের মৃত মাতাব উদ্দিনের ছেলে শাহজাহান (৪৫), তার স্ত্রী নাদিরা (৩৫), ছেলে এইচএসসি’র ছাত্র রাকিবুল (১৭) ও মেয়ে ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী মীম (১৫)।

এ হামলায় গুরুতর রক্তাত্ব জখমী শাহজাহানকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও আহত অন্য ৩ জনকে গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ হামলার সাথে জড়িত রমযান (২৪) নামে স্থানীয় এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আহত নাদিরা জানান, একই গ্রামের প্রতিবেশী মৃত মুন্নাফ আলীর ছেলে আলাল গংদের সাথে তাদের বিরোধ চলে আসছিল। এ বিরোধের জের ধরে কিছুদিন পূর্বে আলাল তার ছেলে রাকিবুলের কাছে চাঁদাও দাবি করেছিল। ঘটনারদিন বিকেলে রাকিবুল বাড়ির সামনে রাস্তার পাশে ঝড়ে ভেঙ্গে পড়া গাছের ডাল কাটছিলেন। এসময় রাস্তা দিয়ে হেটে যাচ্ছিলেন আলাল। মাথায় গাছের ডাল পড়ার সম্ভাবনা থাকায় তখন আলালকে রাস্তা থেকে নেমে পার্শ্ববর্তী ক্ষেত দিয়ে যাওয়ার কথা বলেন রাকিবুল। এতে আলাল ক্ষিপ্ত হয়ে বাই সাইকেলের চেইন দিয়ে পিঠিয়ে আহত করে রাকিবুলকে।

এসময় ছেলেকে রক্ষা করতে আসলে নাদিরা ও তার মেয়ে মীমকেও মারধর করে আলাল। এর ৩০ মিনিট পর নাদিরার স্বামী শাহজাহান গৌরীপুর শহর থেকে বাড়িতে আসা মাত্রই আলাল ও তার ভাই হলু মিয়া (৩০), জামাল উদ্দিন (৪৫), মৃত শাহজাহানের ছেলে রমজান (২৪), রফিকুলসহ আরো কয়েকজন ২য় দফায় সশস্ত্র হামলা চালায় তাদের বাড়িতে।

এসময় রামদা দিয়ে কুপিয়ে শাহজাহানের মাথায় রক্তাক্ত জখমসহ এলোপাতারীভাবে পিঠিয়ে ডান হাত ভেঙ্গে দেয় হামলাকারীরা। স্বামীকে রক্ষা করতে আসলে ২য় দফায় আবার তাদেরকে মারধর করা হয়।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্লাহ মামুন জানান, উক্ত হামলার ঘটনায় নাদিরা বাদী হয়ে বুধবার রাতে গৌরীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলার আসামী রমযানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :