গৌরীপুরে বাঁশের খুটিতে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন, দুর্ঘটনার শঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত : মঙ্গলবার ২৪ আগস্ট, ২০২১ /

গ্রামের মাঝখান দিয়ে গেছে পীচঢালা পথ। সেই পথের পাশেই বাঁশের খুঁটি পুতে নেয়া হয়েছে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন। বৈদুতিক তারের ভারে বাঁশের দুর্বল খুঁটি হেলে পড়েছে। কোথাও আবার হেলে থাকা বাঁশের খুঁটি ঠেকনা দেয়া হয়েছে অপর একটি বাঁশ দিয়ে।

প্রায় এক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে পিডিবির বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের এই চিত্রের দেখা মিলে ময়মনসিংহের গৌরীপুরের শালীহর গ্রামে। ঝুঁকিপূর্ণ এই বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের জন্য গ্রামবাসী শঙ্কায় থাকে।

গ্রামবাসীর অভিযোগ বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের বাঁশের খুঁটি পরিবর্তন করে সিমেন্টের খুঁটি বসানোর জন্য কর্তৃপক্ষকে দাবি জানানো হলেও কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এই অবস্থায় জীবন ঝুঁকির মধ্যেই চলাচল ও বসবাস করতে হচ্ছে তাদের।

খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে শালীহর গ্রামের নয়াপাড়া জামে মসজিদ এলাকায় পিডিবির বৈদ্যুতিক সঞ্চালন লাইনের সিমেন্টের খুঁটি রয়েছে। সেই খুঁটি থেকে গ্রামের ভেতরে নিমতলী বাজার পর্যন্ত বিদ্যুৎ নিতে প্রায় এক কিলোমিটার এলাকায় বাঁশের খুঁটি ব্যবাহার করা হয়েছে। সেখানে থেকে অর্ধশতাধিক গ্রাহক সড়ক ও ফসলি জমিতে বাঁশের খুঁটি পুতে তার টেনে বাড়ি কিংবা সেচের জন্য বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়েছেন। কিন্তু সংস্কার না হওয়ায় রোদে পুড়ে ও বৃষ্টিতে ভিজে বাঁশের খুঁটিগুলো দুর্বল ও জরাজীর্ণ হয়ে গেছে। এই অবস্থায় যেকোন মুহূর্তে খুঁটি ধসে কিংবা তার ছিঁড়ে প্রাণহানির মত দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

গ্রামের বাসিন্দা নূরুল হক বলেন, বিদ্যুৎ লাইনের বাঁশের খুঁটি নষ্ট কিংবা ভেঙে পড়লে গ্রাহকরা নতুন করে খুঁটি স্থাপন করেন। বিদ্যুৎ বিভাগ কোন খবর নেয় না। পাঁচ বছর ধরে এভাবেই ঝুঁকিপূর্ণ উপায়ে বিদ্যুৎ ব্যবহার করে আসছে গ্রামবাসী।

ইউপি সদস্য আব্দুল হেলিম বলেন, সড়কের পাশে বিদ্যুতের তার সহ বাঁশের খুঁটি হেলে পড়েছে। ঝড়-বৃষ্টিতে দুর্ঘটনা এড়াতে দ্রুত বিদ্যুৎ লাইনের সংস্কার ও বাঁশের খুঁটি পরিবর্তন করে সিমেন্টের খুঁটি দেয়ার দাবি জানাচ্ছি।

উপজেলা প্রকৌশলী আবাসিক (বিদ্যুৎ) মো. বিল্লাল হোসেন বলেন, প্রকল্পের মাধ্যমে উপজেলায় বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন সংস্কার ও খুঁটি স্থাপনের কাজ চলছে। শালীহর গ্রামের বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন সংস্কার ও বাঁশের খুটি পরিবর্তন করে সিমেন্টের খুঁটি দেয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন :