গৌরীপুরে বাস-প্রাইভেটকার সংঘর্ষে একই পরিবারের নিহত ৫, আহত ২

স্টাফ রিপোর্টার :
প্রকাশিত : শুক্রবার ১৬ আগস্ট, ২০১৯ /

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে বাস ও প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের পাঁচজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো দুইজন। শুক্রবার (১৬ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কের গৌরীপুর উপজেলার গাঁও-রামগোপালপুর এলাকায় এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন, নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলার চন্ডিগর গ্রামের রফিকুজ্জামান (৪৫), স্ত্রী নাজমুন্নাহার শামীমা (৪০), ছেলে নাদিম হোসেন (১৫ ), মেয়ে রওনক জাহান (১৩) ও শ্যালক আশরাফ (২৫)। আহতরা হলেন ছেলে নাহিদ (৩) ও প্রাইভেটকার চালক স্বপন । আহতরা ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিৎিসাধীন রয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ময়মনসিংহ থেকে কিশোরগঞ্জগামী এমকে সুপার নামের একটি যাত্রীবাহী বাস বিপরীত দিক থেকে আসা ময়মনসিংহগামী একটি প্রাইভেটকারের (ঢাকা মেট্রো-গ ৩৯-৪০৮৬) মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলেই রফিকুজ্জামানের স্ত্রী নাজমুন্নাহার শামীমা মারা যান। মুমূর্ষ অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর আরো তিনজন রফিকুজ্জামান (৪৫), ছেলে নাদিম (১৯ ), মেয়ে রওনক জাহান (১৩) মারা যান। এরপর বিকেল ৩ টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রফিকুজ্জামানের শ্যালক আশরাফ মারা যান।

রফিকুজ্জামানের ভাতিজা আনিসুজ্জামান জানান, ঈদের ছুটিতে চাচা রফিকুজ্জামান তার পরিবারের সদস্যদের নিয়ে নান্দাইল উপজেলার মধুপুর শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন। সেখান থেকে শুক্রবার একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে রামগোপালপুর এ দুর্ঘটনা ঘটে।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো: কামরুল ইসলাম মিয়া জানান, বাসটি যাত্রী নিয়ে ময়মনসিংহ থেকে কিশোরগঞ্জ যাচ্ছিল। অপরদিকে প্রাইভেটকারটি গৌরীপুর থেকে টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইলের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিল। পথে দুটি যানের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। পরে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এসে হতাহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

তিনি আরো জানান, নিহত ব্যক্তিদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। বাসটিকে জব্দ করা হলেও চালক পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :