গৌরীপুরে লাল খানের দাম হাঁকা হয়েছে ১০ লাখ

মশিউর রহমান কাউসার
প্রকাশিত : বুধবার ৭ জুলাই, ২০২১ /

ঈদুল আজহা উপলক্ষে ময়মনসিংহের গৌরীপুরে কোরবানির হাটে এবার মাঠ কাঁপাবে বিশালা কৃতির ষাঁড় লাল খান। এই ষাঁড়টি উপজেলার প্রাণি সম্পদ মেলায় এ বছর প্রথম স্থান অধিকার করেছে। প্রায় ১১ ফুট দৈর্ঘ্য, ৬ ফুট উচ্চতা ও ৩৪ মাস বয়সের এই ষাঁড়টি ওজন ১২শ কেজি। শাহীওয়াল জাতের এই ষাঁড়টির দাম হাঁকা হয়েছে ১০ লাখ টাকা (০১৯১০-৭৩১৪৯০)।

ষাঁড়ের মালিক গৌরীপুর পৌরসভার গাঁওগৌরীপুর খানপাড়া এলাকার স্বপ্ননীল খামারের ইমরুল কায়েস (২৪)। এ ষাঁড়টিকে দেখার জন্য প্রতিদিন তার বাড়িতে ভিড় জমছে মানুষের। এসময় অনেকে ষাঁড়টিকে কেনার জন্য দর দামও করছেন, কিন্তু কাঙ্খিত মুল্য না হওয়ায় ষাঁড়টিকে বিক্রি করছেন না ওই খামারি।

ইমরুল কায়েস ২০০৭ সনে বাড়িতে স্বপ্ননীল নামে গরুর খামারটি স্থাপন করে নিজেই গরুর পরিচর্চা করে আসছেন। প্রতি বছরও কোরবানির হাটে দু’একটি করে ষাঁড় বিক্রি করে কম বেশি লাভবান হচ্ছেন তিনি। এ বছর লাল খান নামে ষাঁড়টি বিক্রি করে অধিক লাভের মুখ দেখবেন এমনটি আশা করছেন তিনি। কঠোর লকডাউনে বর্তমান অনলাইন বাজারে ষাঁড় বিক্রি করে লাভ তো দূরের কথা আসল টাকা পাবেন কিনা এ নিয়ে হতাশা দেখা দিয়েছে তার মনে।

খামারি ইমরুল কায়েস জানান, লাল রঙের লাল খান ষাঁড়টি বিশালাকৃতির হলেও এটি খুব শান্ত স্বভাবের। ষাঁড়টি লালন পালনে অনেক শ্রম ও অর্থ ব্যয় হয়েছে। এ ষাঁড়টির পেছনে ছোলা, ডাল, গম, ভুট্টা, কুঁড়ো, খইল, ভূষি, ভাত ও কাঁচা ঘাস বাবদ বর্তমানে প্রতিদিন ব্যয় হয় ৬শ টাকা। ষাঁড়টি ১০ লাখ টাকা বিক্রির আশা থাকলেও করোনাকালে এবার অনলাইন হাটের ওপর ভরসা করতে পারছে না তিনি।

তিনি বলেন, উপজেলা প্রাণি সম্পদ অফিসের সহযোগিতায় অনলাইন পশুর হাটে ইতোমধ্যে লাল খানের ছবিসহ বিস্তারিত তথ্য আপলোড করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :