গৌরীপুর পৌরশহরে ময়লার স্তূপ, দুর্ভোগ চরমে

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশিত : মঙ্গলবার ২৩ জুলাই, ২০১৯ /

রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন-ভাতার দাবিতে পৌরসভার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা আন্দোলনে সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন ময়মনসিংহের গৌরীপুর পৌরবাসী। পৌরসভায় অচলাবস্থা দেখা দিয়েছে।

পৌরসভায় জন্ম নিবন্ধন, ট্রেড লাইসেন্স, নাগরিকত্ব সনদ বিভিন্ন কাজ প্রায় বন্ধ রয়েছে। এমনকি কর্মচারীরা না থাকায় শহরের ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কারও হচ্ছে। পৌর এলাকায় বিভিন্ন স্থানে ময়লা জমে উৎকট গন্ধ ছড়াচ্ছে। এ অবস্থায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন নাগরিকরা।

পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে, সারাদেশের পৌরসভার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন-ভাতার দাবিতে গত ১৪ জুলাই থেকে ঢাকায় আন্দোলনে রয়েছেন। তাদের মহাসমাবেশসহ নানা কর্মসূচিতে যোগ দিতে রাজধানীতে আছেন গৌরীপুর পৌরসভার বেশিরভাগ কর্মকর্তা ও কর্মচারী। এতে পৌরসভায় দাফতরিক কার্যক্রম প্রায় বন্ধ রয়েছে।

সোমবার (২২ জুলাই) বিকালে পৌরসভার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, বাসস্ট্যান্ড, উত্তরবাজার, মাছ বাজার, মধ্যবাজার, হারুন পার্ক, ধান মহাল, মরিচ মহাল, স্টেশনরোড ও কালীপুর মধ্যমতরফ এলাকায় ময়লা-আবর্জনা জমে ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। ডাস্টবিনগুলো উপচে ময়লা বের হয়ে গেছে। দুর্গন্ধে নাকাল হতে হচ্ছে পথচারীদের। আবর্জনার অসহনীয় গন্ধে অনেকেই দোকান বন্ধ রেখেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পৌরসভার কঞ্জারভেন্তি সুপারভাইজার মো. আবু সিদ্দিক বলেন, আমরা ঢাকায় আছি। আমাদের সন্তানরা না খেয়ে থাকবে, আমি উপোস থাকব, সেটা কীভাবে দেব?

গৌরীপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম জানান, পৌরসভার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা আন্দোলনে থাকায় পৌরবাসী সেবা পেতে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। শহরের পরিচ্ছন্নতার অবস্থাও খারাপ।

আপনার মতামত লিখুন :