ছেলের রক্তের সাথে বেঈমানি না করতে বাবার আহ্বান

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : রবিবার ১৩ অক্টোবর, ২০১৯ /

আবরার হত্যা মামলা নিয়ে আবরারের বাবা বরকতউল্লাহ বলেন, এ ধরনের অধিকাংশ মামলা দীর্ঘ সময় নিয়ে বিচারাধীন থাকে। দেখা যায় কয়েকদিন পরেই আসামিরা কারাগার থেকে জামিনে বের হয়ে আসে। পরিবারকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য নানা রকম ভয় ভীতি দেখায়, চাপ প্রয়োগ করে। শেষ পর্যন্ত দেখা যায় মামলার ১০ আসামির ৬ আসামির সাজা, বাকিরা বেকসুর খালাস পেয়েছে।

আবরার হত্যার ঘটনায় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের পাঁচ দফা দাবি মেনে নিয়ে শনিবার (১২ অক্টোবর) বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বুয়েট কর্তৃপক্ষ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘শিক্ষার্থীদের শান্ত করার কৌশল হিসেবে যদি সব দাবি মেনে নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়, তাহলে আমার ছেলের রক্তের সাথে বেঈমানি করা হবে।’

উল্লেখ্য, ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেয়ার জেরে বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে রোববার (৬ অক্টোবর) রাতে ডেকে নিয়ে যায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এরপর রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের নিচতলা ও দোতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় ১৯ জনকে আসামি করে মামলা করেন আবরারের বাবা।

আপনার মতামত লিখুন :