জিয়ার মৃত্যুবার্ষিকীতে বিএনপির ১০ দিনের কর্মসূচি

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার ৯ মে, ২০১৯ /

দলের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দশ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। আগামী ২২ মে থেকে ৩১ মে পর্যন্ত ১০ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের যৌথসভা শেষে এসব কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- ২২ মে সকাল ছয়টায় নয়াপল্টনে দলীয় পতাকা অর্ধনমিত। ওইদিন সকাল ১০টায় জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন দলের সিনিয়র নেতারা।

একইদিন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) উদ্যোগে বিনামূলে চিকিৎসা, মহানগর বিএনপির উদ্যোগে দরিদ্রদের মধ্যে খাবার ও ইফতার বিতরণ করা হবে।

বিএনপির সহযোগী সংগঠন জাতায়তাবাদী ছাত্রদলের উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবে আলোকচিত্র প্রদর্শনী হবে। এছাড়া সারাদেশে অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের শাখাসমূহের সুবিধা অনুযায়ী সময়ে আলোচনা সভার আয়োজন করবে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেন, ‘শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ছিলেন বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠাতা। একদলীয় শাসন ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে তিনি বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছেন। আমরা যথাযোগ্য মর্যাদায় তার ৩৮তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন করব।’

ফখরুল অভিযোগ করেন, ‘সরকার জনগণের সব অধিকার কেড়ে নিয়ে দেশকে একটি অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করার পাঁয়তারা করছে।’

তিনি বলেন, ‘যিনি দীর্ঘকাল গণতন্ত্রের জন্য আন্দোলন- সংগ্রাম করেছেন, সেই নেত্রীকে অন্যায়ভাবে সাজা দিয়ে আটকে রেখেছেন। শুধু গণতন্ত্রের কর্মী হওয়ায় গণতন্ত্রের বহু নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছে।’

যৌথসভায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দীন খোকন, মজিবর রহমান সরোয়ার, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বজলুল বাসিত আঞ্জু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামসুল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :