রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৭:০৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
ঈশ্বরগঞ্জে প্রতিপক্ষের বল্লমের আঘাতে বালুশ্রমিক নিহত কলমাকান্দায় ওষুধ ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার পেঁয়াজের পর এবার রসুনের দাম ছুঁয়েছে আকাশ বাজারে আসছে ২০০ টাকার নোট রেডিও কিনতে স্ত্রীর গয়না বিক্রি, জাদুঘর গড়ার স্বপ্ন তার ত্রিশালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শ্রমিকের মৃত্যু হালুয়াঘাটে বাসচাপায় অটোরিকশার ৪ যাত্রী নিহত শেরপুরে ভাষা দিবসের অনুষ্ঠান দেখতে গিয়ে প্রাণ গেল দুই বন্ধুর গফরগাঁওয়ে চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ, বাবা-মেয়ে আহত গফরগাঁওয়ে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা ময়মনসিংহে বিনম্র শ্রদ্ধায় পালিত হলো আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস গফরগাঁওয়ে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন, চলাচল বিঘ্নিত প্রয়োজনে কিংবা অপ্রয়োজনে ক্রেতা হয়ে যান তাদের ৫২’র ভাষা আন্দোলনে ময়মনসিংহের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস গৌরীপুরে ৩ বছরেও অন্ধকারে কৃষক আফাজ খুনের রহস্য স্বামী বিদেশ, পরকীয়া প্রেমিকের হাতে প্রাণ গেল অন্তঃসত্তা গৃহবধুর ধোবাউড়ায় বিয়ের প্রলোভনে প্রেমিকাকে চারবন্ধু মিলে ধ’র্ষণ ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা প্রস্তুত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ধোবাউড়ায় অটোরিকশার ধাক্কায় স্কুলছাত্রী নিহত

জোড়া লাগানো দুই শিশুকে বাঁচানো গেল না

এক লিভার নিয়ে জন্ম নেয়া জোড়া লাগানো দুই শিশুকে বাঁচানো গেল না। পরিবার আর চিকিৎসকদের সব চেষ্টা ব্যর্থ করে পরপারে পাড়ি জমিয়েছে তারা।

গত ২৫ জানুয়ারি সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জন্ম হয়েছিল তাদের। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে শিশু দুটিকে আলাদা করার জন্য পাঠানো হয়েছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশু দুটি রোববার রাতে মারা যায়।

সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) রাতে জাগো নিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন শিশু দুটির বাবা মামুনুর রশিদ। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার রাতে তাদের মৃত্যু হয়।

গত ২৫ জানুয়ারি সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার ফতেহপুর গ্রামের হাফেজ মামুনুর রশিদের স্ত্রী ফাতেমা বেগমকে ভর্তি করা হয় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। ওই দিন দুপুরে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে জোড়া লাগানো দুটি কন্যা শিশুর জন্ম দেন ফাতেমা।

জন্মের পর থেকে শিশু দুটিকে রাখা হয় হাসপাতালের শিশু সার্জারি ওয়ার্ডের ইনকিউবেটরে। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চিকিৎসকরা নিশ্চিত হন শিশু দুটির সকল অঙ্গপ্রত্যঙ্গ স্বাভাবিক ও আলাদা রয়েছে। শুধুমাত্র দুই শিশুর লিভার একটি। এক লিভার নিয়েই জন্ম নিয়েছে তারা।

ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক মো. নূরুল আলম বলেন, শিশু দুটির কিডনি, হার্ট ও ফুসফুস আলাদা ছিল। শুধুমাত্র লিভার ছিল একটি।

জানা গেছে, শিশু দুটির নাম রাখা হয় হান্নানা ও রুহামা। ‘নিওনেটাল ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট-এনআইসিইউ’ না থাকায় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জোড়া লাগা শিশু দুটিকে আলাদা করা সম্ভব হয়নি।

গত ২ ফেব্রুয়ারি তাদেরকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার তাদের মৃত্যু হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

কপিরাইট © গৌরীপুর নিউজ ডট কম ২০২০
Design & Developed BY A K Mahfuzur Rahman