গৌরীপুরে কৃষকের পুকুর থেকে জোরপূর্বক মাছ ধরে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশিত : শনিবার ১৫ জুন, ২০১৯ /

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ডৌহাখলা ইউনিয়নের চড়ঘোড়ামারা গ্রামে জমি দখলের চেষ্টায় সোলাইমান (৫৫) নামে এক কৃষকের পুকুর থেকে জোরপূর্বক ১ লক্ষ টাকার মাছ ধরে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ ওঠেছে প্রতিপক্ষ মতিউর রহমান শিখনের (৩২) ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে। শুক্রবার (১৪ জুন) দুপুর সাড়ে ১২ টায় এ ঘটনা ঘটে।

উল্লেখিত গ্রামের মৃত আসন আলীর ছেলে সোলাইমান জানান, স্থানীয় অমুল্য চন্দ্র সরকার ও তার ভাই গৌরাঙ্গ চন্দ্র সরকারের কাছ থেকে প্রায় ২৫ বছর পূর্বে ৪৫ শতক জমি সাফ কাওলা দলিলমূলে ক্রয় করে সেই জমি ভোগদখল করে আসছেন। এই জমির মধ্যে ২০ শতক জমিতে তিনি পুকুর স্থাপন করে মাছ চাষ করছেন। কিছুদিন ধরে একই গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে প্রতিবেশী শিখন ও তার লোকজন এই পুকুর দখলের চেষ্টা করে আসছেন। ঘটনার দিন শিখন ও তার ভাই বাবুর (২৬) নেতৃত্বে স্থানীয় মোসলেম (৬০), তার ছেলে সুজন (৩০), নেওয়াজ আলীর ছেলে নুরুল (৩২) তার পুকুরে জোরপূর্বক জাল টেনে প্রায় ১ লক্ষ টাকার মাছ ধরে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় মতিউর রহমান শিখন উল্লেখিত জমি নিজের দাবি করে জানান, সোলাইমান যে জায়গা ভোগ দখল করে আসছেন এরমধ্যে সাড়ে ১২ শতক জমি তার পিতা মৃত আবুল কাশেমের নামে দলিলকৃত সম্পত্তি। পিতা একজন চাকুরিজীবী হওয়ায় তারা এলাকায় থাকতেন না। ফলে নিজেদের জমির মালিকানার বিষয়টি তিনি জানতেন না। পিতার মৃত্যুর পর ঘটনাটি জানতে পেরে এ জমি নিয়ে এলাকায় গণ্যমান্য লোকজনের উপস্থিতিতে দেন দরবারের আয়োজন করেন তিনি। এই দরবারের সিদ্ধান্ত মানেননি সোলাইমান।

আপনার মতামত লিখুন :