তথ্য গোপন করে হাসপাতালে করোনা রোগী ময়মস‌সিংহ মে‌ডি‌কে‌লে সেবা দিতে গিয়ে আক্রান্ত ৭ চিকিৎসক

সাজ্জাতুল ইসলাম সাজ্জাত ও সাবরিনা জান্নাত
প্রকাশিত : মঙ্গলবার ২১ এপ্রিল, ২০২০ /

ময়মনসিংহে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অর্ধশত ছাড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সাতজন ডাক্তার, তিনজন নার্স ও আটজন স্বাস্থ্যকর্মীসহ জেলায় ২১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এ পর্যন্ত জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৪ জনে। এরমধ্যে ফুলপুর ও ত্রিশালে দু’জন মারা গেছেন।

সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা যায়, শেরপুরের এক প্রসূতি তথ্য গোপন করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ সার্ভিস হয়ে হিমোডায়ালোসিস, গাইনি, অপারেশন থিয়েটার ও আইসিইউ বিভাগে চিকিৎসা নেয়ার খবর জানাজানি হলে সংশ্লিষ্টদের নমুনা সংগ্রহ করে পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করলে সাতজন ডাক্তার, তিনজন নার্স ও আটজন স্বাস্থ্যকর্মীসহ ২১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এখবর ছড়িয়ে পড়লে হাসপাতালজুড়ে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

এছাড়া ফুলপুরের বালিয়া এক শিশুসহ দুইজন ও ফুলবাড়িয়া উপজেলায় মিজানুর রহমান নামে এক ব্যক্তির প্রথম করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এরআগে এক নারীর চিকিৎসা করতে গিয়ে গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের তিনজন ডাক্তার, তিনজন উপ-সহকারি কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসারসহ ১২জনের করোনা শনাক্ত হয়। ময়মনসিংহের ত্রিশালে করোনা উপসর্গ নিয়ে মেহেদি হাসান রনি (২০) নামে এক যুবক মারা গেছে।

গত সোমবার ত্রিশাল উপজেলার সাকুয়া গ্রামের নিজ বাড়িতে মারা যাওয়ার পর স্বাস্থ্য বিভাগ তার নমুনা সংগ্রহ করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করলে করোনা পজিটিভ হয়। এরপর উপজেলা প্রশাসন সাকুয়া গ্রামটি লকডাউন ঘোষণা করে।

আপনার মতামত লিখুন :