তৃতীয় স্ত্রীর বাড়িতে মিলল ইউপি চেয়ারম্যানের সেই পিস্তল

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : শনিবার ৪ মে, ২০১৯ /

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে গুলি করে ইদ্রিস নামে কৃষককে হত্যায় অভিযুক্ত যোগানিয়া ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হবুর ব্যবহৃত পিস্তল উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার গভীর রাতে নালিতাবাড়ী উপজেলার জামিরাকান্দা এলাকার হাবিবুরের তৃতীয় স্ত্রীর বাড়ি থেকে মাটি খুঁড়ে পলিথিনে মোড়ানো ৭.৬২ বোরের এমএম পিস্তলটি উদ্ধার করা হয়। শনিবার বিকেলে জেলা পুলিশ অফিসে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. বিল্লাল হোসেন।

প্রেস ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, গত ২৫ এপ্রিল দুপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে নালিতাবাড়ীর যোগানিয়া ইউনিয়নের কুত্তামারা গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে কৃষক ইদ্রিস আলীকে ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হবু ও তার ছেলে শান্ত পিস্তল দিয়ে গুলি করে হত্যা করেন। সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার ফতেহপুর এলাকা থেকে গতকাল শুক্রবার ভোরে ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হবুকে গ্রেফতার করে নালিতাবাড়ী আনা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে এবং তার উপস্থিতিতে নালিতাবাড়ী উপজেলার জামিরাকান্দা এলাকার তার তৃতীয় স্ত্রী আমেলা খাতুনের বাড়িতে লুকিয়ে রাখা হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত পিস্তলটি উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর, তার স্ত্রী আলেয়া ও ছেলেকে আসামি করে মামলা করেছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. বিল্লাল হোসেন বলেন, কৃষক ইদ্রিস হত্যা মামলায় ২৭ আসামির মধ্যে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যে প্রধান আসামিসহ ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। হত্যা মামলায় জড়িত অন্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আমিনুল ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার (নালিতাবাড়ী সার্কেল) মো. জাহাঙ্গীর আলম, নালিতাবাড়ী থানার ওসি মো. আবুল খায়ের উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :