ধর্ষককে গণধোলাই দিলো এলাকাবাসী

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : শনিবার ২৭ এপ্রিল, ২০১৯ /

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলায় ফুফুর বাড়ি থেকে স্বামীর বাড়ি যাওয়ার পথে এক গৃহবধূকে (২২) তুলে নিয়ে ধর্ষণ করেছে কাওছার খান (২৫) নামে দুই সন্তানের জনক। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার পশ্চিম বাগধা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় মামলা করেছেন ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ। ওই মামলায় শনিবার দুপুরে দুই সন্তানের জনক কাওছার খানকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। এর আগে কাওছার খানকে আদালতে সোপর্দ করে আগৈলঝাড়া থানা পুলিশ। কাওছার খান কোটালীপাড়া উপজেলার হরিনাহাটি গ্রামের ফজলুল হক খানের ছেলে।

অন্যদিকে, ধর্ষণের শিকার গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আগৈলঝাড়া থানা পুলিশের ওসি মো. আফজাল হোসেন এসব বিষয় নিশ্চিত করেছেন।

মামলার বরাত দিয়ে ওসি বলেন, ওই গৃহবধূর স্বামীর বাড়ি ও কাওছারের বাড়ি কোটালীপাড়া উপজেলার হরিনাহাটি গ্রামে। শুক্রবার সন্ধ্যায় গৃহবধূ আগৈলঝাড়া উপজেলার পশ্চিম বাগধা গ্রামের ফুফুর বাড়ি থেকে স্বামীর বাড়ি হরিনাহাটি গ্রামে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে কাওছার খান গৃহবধূকে তুলে নিয়ে বাগধা গ্রামের মৃত্যুঞ্জয় মজুমদারের বাড়ির পুকুর পাড়ে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় গৃহবধূর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে ধর্ষক কাওছারকে আটক করে গণধোলাই দেয়। গণধোলাইয়ের পর পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গৃহবধূ ও ধর্ষক কাওসারকে থানায় নিয়ে আসে। গণধোলাইর শিকার কাওছারকে রাতে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

ওসি আফজাল হোসেন আরও বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। শনিবার দুপুরে ধর্ষক কাওছারকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। পরে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক। ধর্ষণের শিকার গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

আপনার মতামত লিখুন :