ধোবাউড়ায় টাকার বিনিময়ে ‘বউ’ বিক্রি, স্বামী গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : সোমবার ২২ জুলাই, ২০১৯ /

ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় শহিদ মিয়া (২৫) নামে এক স্বামী তার স্ত্রীকে টাকার বিনিময়ে পাঁচ বন্ধুর কাছে বিক্রি করেন। বিক্রি করার পর স্বামীর সহায়তায় স্ত্রীকে গণধর্ষণ করে ওই পাঁচজন।

এ ঘটনায় রবিবার (২১ জুলাই) শহিদ মিয়াকে ঢাকার গুলশান মডেল থানার ঝিলের পাড়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত শহিদ মিয়া উপজেলার দুধনই গ্রামের মৃত উসমান আলীর ছেলে।

রবিবার রাত ৯টায় ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ধোবাউড়া থানার ওসি আলী আহমেদ মোল্লা জানান, শহিদ টাকার বিনিময়ে তার স্ত্রীকে টাকার বিনিময়ে একই এলাকার ৫ জন যুবকের কাছে তুলে দেয়। পরে ৬ জুলাই ওই পাঁচজন গৃহবধুকে স্বামীর সহায়তায় গোপন স্থানে নিয়ে জোড়পূর্বক গণধর্ষণ করে।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় ১১ জুলাই ভিক্টিমের মা বাদী হয়ে ধোবাউড়া থানায় শহিদসহ অজ্ঞাতনামা পাঁজনকে আসামি করে একটি গণধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি শাহ কামাল আকন্দ জানান, মামলার তদন্ত ডিবি পুলিশে স্থানান্তর করার পর শহিদ মিয়াকে ঢাকা গুলশান মডেল থানাধীন ঝিলের পাড়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয।

গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শহিদ মিয়া তার স্ত্রীকে পাঁচজনের কাছে বিক্রির কথা স্বীকার করে বলেন, ভিক্টিম তার বিবাহিত স্ত্রী।

পূর্ব পরিকল্পিতভাবে স্বামী শহিদ মিয়ার সহায়তায় ওই পাঁচজন তার স্ত্রীকে গণধর্ষণ করেন এবং এই ঘটনার সাথে শহিদ মিয়া জড়িত আছে বলেও স্বীকার করেছেন।

মামলার অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতার করার জন্য অভিযান চলছে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :