ধোবাউড়ায় হিন্দু ছাত্রীকে মুখ বেঁধে ধর্ষণ করল মাদক ব্যবসায়ী

উপজেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : শনিবার ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ /

ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় কলসিন্দুর স্কুল এন্ড কলেজের স্কুল শাখার সনাতন ধর্মের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে মুখ বেঁধে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে আব্দুস সাত্তার (৩০) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী যুবকের বিরুদ্ধে।

ভিক্টিম মেয়েটি সনাতন ধর্মালম্ভী। সে কলসিন্দুর উত্তর বাজার এলাকার বাসিন্দা। আব্দুস ছাত্তার উপজেলার নলগড়া (কলসিন্দুর) গ্রামের রইস উদ্দিনের ছেলে। সে কলসিন্দুর উত্তর বাজার এলাকায় নিজ বাসাতেই বসবাস করে।

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টম্বর) রাতে ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে আব্দুস সাত্তারকে আসামী করে ধোবাউড়া থানায় মামলা দায়ের করেন। এর আগে সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) সকালে কলসিন্দুর উত্তর বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, মেয়েটির বাড়ি সাত্তারের বাসার পাশাপাশি হওয়ার সুবাধে প্রত্যেকদিন মেয়ে তার বাসার সামনে দিয়ে স্কুলে যেত। সোমবার সকালে ধর্ষণের স্বীকার মেয়েটি বাড়ি থেকে স্কুলে যাওয়ার পথে সাত্তার তার পথরোধ করে তার বাড়িতে যেতে বলে।

এ সময় সাত্তারের বাসায় কেউ না থাকার সুবাধে মেয়েটির মুখ বেধে জোড়পুর্বক ধর্ষণ করে এবং কাউকে জানালে হত্যার হুমকি দেয় সাত্তার।

পরে মেয়েটি বাড়িতে গিয়ে মা-বাবার কাছে সব কিছু খুলে বলে। কিন্তু, সাত্তার হত্যার হুমকি দেয়া ও সনাতন ধর্মালম্ভী হওয়ার কারনে ভয়ে মামলা করতে পারেনি।

স্থানীয় একজন নাম প্রকাশ না শর্তে বলেন, সাত্তার একজন মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মাদক মামলা আছে। তার বিরুদ্ধে ভয়ে কেউ কথা বলে না।

সার্কেল এএসপি আলমগীর হোসেন বলেন, এ ঘটনায় ধর্ষক সাত্তারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে সাত্তারের বিরুদ্ধে মামদক মামলা আছে কিনা সেটা আমার জানা নাই।

আপনার মতামত লিখুন :