ধোবাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যানের গাড়িতে গুলি!

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : রবিবার ৩০ জুন, ২০১৯ /

ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডেভিড রানা চিসিমের গাড়িতে গতকাল শনিবার রাতে গুলি করেছে দুর্বত্তরা। গুলিতে তাঁর সরকারি গাড়ির পেছনের কাঁচ ভেঙে গেছে। গাড়ি চালাচ্ছিলেন চালক আবদুল আজিজ। চেয়ারম্যান সে সময় গাড়িতে ছিলেন না।

তবে গুলির আঘাত বলে মানছে না পুলিশ। ধোবাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহাম্মেদ মোল্লা বলছেন, ‘গুলি নয়, সম্ভবত ইটের আঘাত।’

ডেভিড রানা চিসিম ধোবাউড়া উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক। তিনি বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে দলীয় প্রার্থী ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মজনু মৃধাকে পরাজিত করেন।
চেয়ারম্যানের গাড়িতে গুলি করা হয়েছে বলে স্থানীয়দের দ্বারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খবর ছড়িয়ে পড়েছে।
প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধারণা, এটি গুলি নাও হতে পারে, চলন্ত গাড়িতে পেছন থেকে নিক্ষিপ্ত ইটের আঘাতে গাড়ির কাঁচ ভেঙে গেছে। তবে প্রকৃত ঘটনা জানতে অনুসন্ধানে নেমেছে পুলিশ।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান ওসি মো. আলী আহাম্মেদ মোল্লা। গাড়িটি রাতেই থানায় নিয়ে যাওয়া হয় পর্যবেক্ষণের জন্য। রাত সাড়ে ১১টার দিকে ডেভিড রানা সিচিমকে তাঁর বাড়িতে (জয়রামপুর) নামিয়ে দিয়ে চালক গাড়ি নিয়ে উপজেলা পরিষদে যাওয়ার পথে কোর্টের দীঘিরপাড় নামক স্থানে আক্রান্ত হয় গাড়িটি।
ধোবাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলমগীর জানান, গাড়িতে গুলির ঘটনা সঠিক নয়। ইটের আঘাতেই গাড়ির কাঁচ ভেঙেছে বলে ওসি তাঁকে জানিয়েছেন। বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে।

এ বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ডেভিড রানা চিসিম আজ রোববার বিকেলে এনটিভি অনলাইনকে বলেন, রাতে একটা ঘটনা ঘটেছে। সেটা গুলির ঘটনা না অন্য কিছু, তা জানতে আমি পুলিশের কাছে সাহায্য চাইছি। তারা বিশেষজ্ঞ দিয়ে পরীক্ষা করবে, পরে বোঝা যাবে। কে বা কারা কী উদ্দেশ্যে এটি করেছে বুঝতে পারছি না।

উপজেলা চেয়ারম্যান আরো বলেন, বিকট শব্দের পর গাড়ি থামিয়ে চাকা চেক করেন চালক। পরে গাড়ির পেছনের কাঁচ ভাঙা দেখে ভয়ে হৈচৈ শুরু করেন তিনি। পরে আমাকে ফোন করে বলেন, সম্ভবত গাড়িতে কেউ গুলি করেছে। পরে পুলিশের সামনেও চালক একই কথা বলেছেন।
ডেভিড রানার সরকারি গানম্যান বা ব্যক্তিগত কোনো আগ্নেয়াস্ত্র নাই বলেও জানান তিনি।

সূত্র- এনটিভি অনলাইন

আপনার মতামত লিখুন :