নবজাতকের মাথা ছিঁড়ে ফেলল চিকিৎসক

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : মঙ্গলবার ১৬ জুলাই, ২০১৯ /

ঠাকুরগাঁওয়ে এক নবজাতকের মাথা ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে এক পল্লী চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার গড়েয়া ইউনিয়নের পুরাতন গড়েয়ার রাজ্জাকুলের (খুট্টু) গর্ভবতী স্ত্রী ফয়জুনের (২৭) বাচ্চা প্রসবের সময় ঘনিয়ে আসে।

রবিবার সকাল থেকেই ফয়জুনের প্রসব বেদনা ওঠে। কিন্তু রাজ্জাকুল অতিশয় গরীব ভ্যান চালক হওয়ায় কোন ক্লিনিক কিংবা হাসপাতালে ভর্তি ব্যয়বহুল হতে পারে বিধায় বাড়ির পাশের এক দাই পুরাতন গড়েয়ার বিহানির মোড় এলাকার জুয়েল নামের এক স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের স্মরণাপন্ন হন।

রবিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে দাই আর চিকিৎসক জুয়েল বাচ্চা বের করার চেষ্টা চালায়। রাত দশটার দিকে জুয়েল রাজ্জাকুলকে ডেকে বলেন, তার স্ত্রীকে দ্রুত ঠাকুরগাঁও সুশ্রী ক্লিনিকে নিয়ে যেতে হবে।কারণ জিজ্ঞাসা করলে সে বলে মেয়ে শিশু বাচ্চার মাথা ছিঁড়ে গিয়েছে।

দিশেহারা হয়ে রাজ্জাকুল রাত বারোটার দিকে ঠাকুরগাঁও সুশ্রী ক্লিনিকে তার স্ত্রীকে নিয়ে আসেন। কিন্তু রক্ত জোগাড় করতে না পারায় সেখানে তার সিজার সম্ভব হয়নি।অবশেষে সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে রাজ্জাকুল তার স্ত্রীকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এখানেই গুরুতর অবস্থায় ফয়জুনের সিজার সম্পন্ন করা হয়।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আশিকুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমরা জেনেছি এবং অভিযুক্ত চিকিৎসক জুয়েলকে গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত আছে।

আপনার মতামত লিখুন :