নান্দাইলে মায়ের সামনে মেয়েকে অপহরণের চেষ্টা

উপজেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : রবিবার ৩০ জুন, ২০১৯ /

ময়মনসিংহের নান্দাইলে পরীক্ষা শেষে স্কুল থেকে মায়ের সাথে বাড়ি ফেরার পথে ৯ম শ্রেণির ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে দুই বখাটে পিয়াস ও দ্বীন ইসলাম অপহরণের চেষ্টা চালায়। এ সময় তাদের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে পিয়াসকে উত্তম-মধ্যম দেয় এবং অন্য বখাটে দ্বীন ইসলাম দৌড়ে পালিয়ে যায়। ওই দুই বখাটেরা হল, একই ইউনিয়নরে কাঞ্চন মিয়ার ছেলে পিয়াস মিয়া ও দুলাল মিয়ার ছেলে দ্বীন ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) বিকালে উপজেলার আচারগাঁও ইউনিয়নে ওই ছাত্রী স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করার চেষ্টা চালায়। এর আগে বুধবার (২৬ জুন) বিকালেও ওই ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা চালায়।

ছাত্রীর মায়ের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার পথে তাঁর মেয়েকে বেশ কিছুদিন ধরে পিয়াস মিয়া ও দ্বীন ইসলাম উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ বিষয়ে ওদের পরিবারের কাছে বিচার চাইলেও কোন কাজ হয়নি।

পরে বুধবার প্রথম সাময়িক পরীক্ষা শেষে মেয়েকে নিয়ে গ্রামের রাস্তা ধরে বাড়ি ফেরার সময় তাদের পথরোধ করে পিয়াস ও দ্বীন ইসলাম। একপর্যায়ে টানাহেঁচড়া শুরু করে। পরে কয়েকজন পথচারীর হস্তক্ষেপে শেষ রক্ষা হয়।

পরদিন বৃহস্পতিবারও পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে পিয়াস ও দ্বীন ইসলাম অস্ত্রের মুখে মায়ের কাছ থেকে ওই স্কুল ছাত্রীকে তুলে নেওয়ার চেষ্টা চালায়। এ সময় তাদের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে পিয়াসকে উত্তম-মধ্যম দেয় এবং অন্য বখাটে দ্বীন ইসলাম দৌড়ে পালিয়ে যায়।

পরে ওই দিন দুই বখাটে কিছু সময় পর লাঠিসোঁটা, দেশিয় অস্ত্রসহ বেশ কিছু লোকজন নিয়ে তাদের বাড়িতে হামলা ও লুটপাট চালায়। এ সময় মেয়েটি চাচার ঘরে আশ্রয় নিলে সেখানেও হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতিসাধন করা হয়। পরে গ্রামের লোকজন এগিয়ে এলে হামলাকারীরা চলে যায়।

স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে বখাটে পিয়াসের মা লতিফা খাতুন ও অভিযুক্ত রাজীব নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে।

নান্দাইল থানার ওসি মনসুর আহাম্মদ বলেন, ওই দুই বখাটে আচারগাঁও ইউনিয়নের সিংদই গ্রামের সনাতন ধর্মের এক স্কুল ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে স্কুল থেকে ফেরার পথে অপহরণের চেষ্টা চালায়। অপহরণে ব্যর্থ হয়ে তাদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতি করে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে ১৬ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন।

শুক্রবার (২৮ জুন) ২২ ধারায় জবানবন্দির জন্য ওই স্কুলছাত্রীকে ও গ্রেফতারকৃত দু’জনকে আদালতে পাঠিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :