পাঞ্জশির প্রদেশে মুখোমুখি তালেবান-আহমেদ মাসুদ বাহিনী

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত : সোমবার ২৩ আগস্ট, ২০২১ /

আফগানিস্তানের পাঞ্জশির প্রদেশের পাঞ্জশির উপত্যকা এখনও তালেবানমুক্ত। আগেরবার যখন তালেবান দেশটি শাসন করেছে, তখনও এটি তারা নিয়ন্ত্রণে নিতে পারেনি। যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত সরকারও গত ২০ বছরে পাঞ্জশিরে ঢুকতে পারেনি। বলতে গেলে দশকের পর দশক এটি মুক্তাঞ্চল হিসেবে থেকে গেছে। তবে অঞ্চলটির দখল নিতে শত শত তালেবান যোদ্ধাকে সেখানে পাঠানো হয়েছে। তাদের প্রতিরোধে প্রস্তুত রয়েছে পাঞ্জশিরের সিংহ বলে পরিচিত আহমেদ শাহ মাসুদের ছেলে আহমেদ মাসুদের নেতৃত্বাধীন বাহিনী। এতে করে ওই অঞ্চলে ব্যাপক রক্তপাতের আশঙ্কা করা হচ্ছে।
লন্ডনের কিংস কলেজ থেকে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করেছেন আহমেদ মাসুদ। দেশে ফিরে পিতার প্রতিষ্ঠিত ন্যাশনাল রেজিস্ট্যান্স ফ্রন্ট অব আফগানিস্তানের নেতৃত্ব নিজের হাতে তুলে নিয়েছেন। এই সংগঠনের মাধ্যমে তালেবানের বিরুদ্ধে প্রতিরোধযুদ্ধ গড়ে তোলার ডাক দিয়েছেন তিনি। এখন পাঞ্জশিরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
আহমেদ মাসুদের ডাকে সাড়া দিয়ে আফগান সেনাবাহিনী ও পুলিশের হাজারো সদস্য পাঞ্জশিরে জড়ো হচ্ছেন। সেখানে তারা প্রতিরোধযুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এটি একই সঙ্গে তালেবানের হাত থেকে সেনাদের প্রাণ বাঁচানোরও একটি নিরাপদ অঞ্চলে পরিণত হয়েছে।
রোববার এএফপির খবরে বলা হয়েছে, ন্যাশনাল রেজিস্ট্যান্স ফ্রন্ট অব আফগানিস্তানের মুখপাত্র আলি মাইসান নাজারি জানান, মাসুদকে আত্মসমর্পণের আহ্বান জানিয়েছে তালেবান। তবে তিনি তা প্রত্যাখ্যান করায় সেখানে যোদ্ধাদের পাঠিয়েছে তালেবান। পাঞ্জশিরে ৯ হাজার সদস্যের প্রতিরোধ বাহিনী গড়ে তুলেছেন মাসুদ। বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আরও সেনা আসছেন। তালেবানের টুইটার অ্যাকাউন্টে গতকাল রাতে বলা হয়েছে, ইসলামী আমিরাতের শত শত তালেবান মুজাহিদ পাঞ্জশিরের দিকে রওনা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :