পালিয়ে গেল বর-কনের লোকজন, ধরা খেলেন কাজি

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল, ২০১৯ /

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে বাল্য বিয়ে নিবন্ধন করার সময় সৈয়দ আব্দুল হাদি (৫৬) নামে এক কাজিকে (নিকাহ রেজিস্ট্রার) হাতেনাতে আটক করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে তাকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। গত সোমবার মধ্যরাতে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কোচাশহর ইউনিয়নের সাহাপুর গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয় ।

দণ্ডপ্রাপ্ত সৈয়দ আব্দুল হাদি উপজেলার কোচাশহর ইউনিয়নের কোচাশহর গ্রামের মৃত আজাহার আলীর ছেলে। তিনি কোচাশহর ইউনিয়নে নিকাহ রেজিস্ট্রার হিসেবে দীর্ঘদিন থেকে কাজ করছেন।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার কোচাশহর ইউনিয়নের সাহাপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে নাছরিন আকতারের (১৪) সঙ্গে শোলাগাড়ী গ্রামের জাফিরুল ইসলামের ছেলে আব্দুল মমিনের বিয়ের নিবন্ধন করতে আসেন কাজি সৈয়দ আব্দুল হাদি। এ সময় স্থানীয়রা ইউএনও এবং পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে ইউএনও রামকৃষ্ণ বর্মন পুলিশসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন এবং বিয়ে নিবন্ধনের সময় কাজি সৈয়দ আব্দুল হাদিকে হাতেনাতে আটক করেন। পরে তাকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন। এ সময় বর ও কনেসহ উভয় পক্ষের লোকজন পালিয়ে যায়।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রামকৃষ্ণ বর্মন জানান, বাল্য বিয়ে নিবন্ধনের কারণে কাজি সৈয়দ আব্দুল হাদির নিকাহ নিবন্ধন বাতিলের পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :