‘পুলিশ হইছ কি হইছে, বিসিএস নাকি?, চিকিৎসকের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : শনিবার ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ /

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা পুলিশ সদস্যের ওপর চড়াও এবং গালিগালাজ করার অভিযোগ উঠেছে এক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। ওই চিকিৎসকের নাম ডা. অনিক মণ্ডল। তিনি ওই হাসপাতালের চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ।

পুলিশ সদস্যের ওপর চড়াও হওয়াসহ তাঁদের সঙ্গে অসদাচরণ ও নাজেহাল করার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ছড়িয়ে পড়েছে। কেউ কেউ ওই চিকিৎসকের সনদ বাতিলেরও দাবি তুলেছেন। চিকিৎসকের কাছে সেবা নিতে গিয়ে নাজেহাল পুলিশ সদস্যের নাম রাকিব আল হাসান। তিনি ময়মনসিংহ পুলিশ লাইন্সে কর্মরত আছেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ময়মনসিংহ কোতোয়ালি সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল-আমীন এ খবর নিশ্চিত করে বলেছেন, গতকাল এ বিষয়ে নাজেহালের শিকার পুলিশ সদস্য হাসপাতালের উপ-পরিচালক লক্ষ্মী নারায়ণ মজুমদারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল-আমীন আরো বলেছেন, আমরা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছি।

হাসপাতালের উপ-পরিচালক লক্ষ্মী নারায়ণ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযোগ পেয়েই ওই চিকিৎসকের কাছে কৈফিয়ত তলব করা হয়েছে।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, গত বুধবার সকালে পুলিশ কনস্টেবল রাকিব আল হাসান তাঁর এক সহকর্মীকে নিয়ে হাসপাতালের বহির্বিভাগের ২২৪ নম্বর কক্ষে চিকিৎসার জন্য যান। তাঁদের একজন পুলিশের পোশাক পরিহিত আরেকজন সিভিল ড্রেসে ছিলেন। টিকিট কেটে চিকিৎসকের কক্ষে গেলে চিকিৎসক অনিক মণ্ডল একজনকে বাইরে থাকার কথা বলেন। পুলিশ সদস্যরা একসঙ্গে থাকার কথা বললে তিনি রাগান্বিত হয়ে উঠেন।

পরে বিষয়টি নিয়ে চিকিৎসক ও পুলিশ সদস্যদের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ডা. অনিক মণ্ডল বলেন, পুলিশ হইছ কি হইছে, বিসিএস নাকি? স্টুপিড, এটা আমার রুম, রুম থেকে বেড়িয়ে যাও।

তখন ওই চিকিৎসকের নামে নালিশ দেওয়ার কথা বললে চিকিৎসক পুলিশ সদস্যকে বলেন, যাও কি বা.. ফালাইতে পারো দেখি।

এ সময় এক পুলিশ সদস্য তাঁর মোবাইল ক্যামেরায় পুরো বিষয়টি ভিডিও করেন। পরে ভিডিওটি আজ শুক্রবার দুপুর ৩টা ১৪ মিনিটে নিরব স্বপ্ন নামের একটি আইডিতে পোস্ট করেন।

এ বিষয়ে জানতে গণমাধ্যমকর্মীরা অভিযুক্ত চিকিৎসক অনিক মণ্ডলের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন।

আপনার মতামত লিখুন :