প্রতিপক্ষ যুবকের রগ কেটে এবার নিজের হাত-পায়ের রগ হারালেন উসমান

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : শনিবার ১৯ অক্টোবর, ২০১৯ /

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চার মাস আগে প্রতিপক্ষ সাইকুল ইসলামের পায়ের রগ কেটে দিয়েছিলেন উসমান গণি (৪৯)। এবার সাইকুল ও তার ভাইরা মিলে কেটে দিলো উসমান গণির হাত-পায়ের রগ। শুক্রবার রাতে নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার আটগাঁও বাজারের কাছে এই ঘটনা ঘটে।

আহত উসমান গণি উপজেরার গোড়ল গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে।

পুলিশ জানায়, তাদের মধ্যে দীর্ঘদিনের পূর্ব শত্রুতা রয়েছে। এরই জের ধরে চলতি বছরের ২৬ জুন সাইকুল ইসলামের পায়ের রগ কেটে দেন উসমান গণি। দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিয়ে সম্প্রতি কিছুটা সুস্থ হন সাইকুল। শুক্রবার রাতে বারহাট্টার আটগাঁও বাজারে সাইকুল তার ভাইদের নিয়ে উসমান গণির হাত-পায়ের রগ কেটে দেন। আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ও পরে মুমূর্ষু অবস্থায় রাতেই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আহতের ছোট ভাই ইনছান গণি ও মো. আব্দুল্লাহ জানান, শুক্রবার রাতে উসমান গণি আটগাঁও বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে দেওপুর ঈদগাহ মাঠের কাছে জঙ্গলে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা প্রতিপক্ষ অলি মিয়া, সাইকুল ইসলাম, তরিকুল ইসলাম, হাবিব মিয়া, দিপু মিয়া, শফিক মিয়া তার ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে। হত্যার উদ্দেশ্যে তারা উসমানের শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে জখম করে এবং হাত-পায়ের রগ কেটে দেয়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করে পর্যায়ক্রমে বারহাট্টা, নেত্রকোনা ও ময়মনসিংহ হাসপাতালে নেয়া হয়।

বারহাট্টা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বদরুল আলম খান জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ইতোমধ্যে মামলার প্রধান আসামি সাইকুলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :