ফুলপুর থানার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত কয়েদির মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার ২৬ আগস্ট, ২০২১ /

ময়মনসিংহের ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত কয়েদির মৃত্যু হয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে। সরোয়ার কামাল লিটন (৫৬) নামের এই কয়েদি মোটরসাইকেল চালক হত্যা মামলার আসামি হিসেবে ময়মনসিংহ কারাগারে বন্দী ছিলেন। তাঁর কয়েদি নম্বর ১১৪৮/এ। সারোয়ার ফুলপুরের কারাহো গ্রামের ফজুলল করিমের ছেলে।

মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) রাত ২টার কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি সেল থেকে অচেতন অবস্থায় ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে (কেরানীগঞ্জ) এবং সেখান থেকে গুরুতর অবস্থায় ঢামেকে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানা যায়, সরোয়ার কামাল লিটন ময়মনসিংহ কারাগারে বন্দি অবস্থায় একাধিকবার চিকিৎসার জন্য রাজধানীর বেশ কয়েকটি হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল। সর্বশেষ চিকিৎসার জন্য তাকে ময়মনসিংহ কারাগার থেকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। সে অনুযায়ী, মঙ্গলবার সকালে তাকে ঢামেকে ডাক্তার দেখানো হয়। এ সময় তাকে ভর্তি না নিয়ে চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। পরে ওই দিন রাতে শারীরিক অবস্থার তাকে দ্রুত ঢামেকে নেওয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মোঃ মাহাবুবুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, “আমাদের এখানে গতকাল ২৪ তারিখ রাতে সরোয়ার কামাল লিটনকে আনার পর তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে তিনি মারা যান। তিনি ফুলপুর থানার একটি মামলার ফাঁসির আসামি ছিলেন।”

ময়মনসিংহ কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার ইকবাল কবির চৌধুরী বুধবার সন্ধায় জানান, এ ধরণের কোন খবর আমি জানি না।

আপনার মতামত লিখুন :