ফুলবাড়িয়ায় বাঁশবাগানে ওড়না, কচুক্ষেতে তরুণীর লাশ

উপজেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার ১১ জুন, ২০২০ /

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলায় এক তরুণীকে (২৫) দলবেঁধে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। উপজেলার বাকতা শ্রীপুর টানপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

হত্যার পর ওই তরুণীর মরদেহ কচুক্ষেতে ফেলে দেয়া হয়। বুধবার (১০ জুন) তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। একই সঙ্গে খবর পেয়ে সিআইডির ক্রাইমসিন ইউনিটসহ পুলিশের একাধিক টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে হত্যার রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা ও আলামত সংগ্রহ করে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার বাকতা শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশে বাঁশবাগানের পাশে কচুক্ষেতে বিবস্ত্র অবস্থায় তরুণীর মরদেহ দেখে পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয়রা।

তরুণীর পাশে পড়ে থাকা ভ্যানিটি ব্যাগে গাজীপুরের একটি মার্কেটের কেনাকাটার রশিদ ও একটি কাগজে হাতে লেখা কয়েকটি ফোন নম্বর পাওয়া যায়। সিআইডি ক্রাইমসিন ইউনিটি তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে অজ্ঞাত তরুণীর পরিচয় শনাক্ত ও হত্যাকাণ্ডের আলামত সংগ্রহ করে।

সিআইডির একাধিক কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কচুক্ষেতে পড়ে থাকা মরদেহের কয়েক গজ দূরে বাঁশবাগানে তরুণীর ওড়না পাওয়া যায়। কয়েজন মিলে তরুণীকে সেখানে নিয়ে আসছিল। বাঁশবাগানের ভেতরে তরুণীকে গণধর্ষণ করা হয়। গণধর্ষণের পর তরুণীকে হত্যা করে মরদেহ কচুক্ষেতে ফেলে রেখে যায় তারা।

ফুলবাড়িয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) মো. আজিজুর রহমান বলেন, অন্য কোনো উপজেলা থেকে তরুণীকে এখানে এনে কয়েকজন মিলে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি। তবে তরুণীর পরিচয় এখনও জানা যায়নি। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছি আমরা।

আপনার মতামত লিখুন :