বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর ডাঃ এম এ সোবহানের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী কাল

মশিউর রহমান কাউসার
প্রকাশিত : বুধবার ২ জুন, ২০২১ /

বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর, ভাষা সৈনিক, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ এম.এ সোবহানের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী কাল বৃহস্পতিবার (৩ জুন)।

ডাঃ এম সোবহানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বাদ আছর স্থানীয় আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে স্মরণসভা ও দোয়া-মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। বাদ যোহর মুক্তিযোদ্ধা কবরস্থানে মরহুমের কবর জিয়ারত করবেন স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা।
এছাড়া মরহুমের পরিবারের পক্ষ থেকে কোরআনখানি ও দোয়া-মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য বালক বয়সে বৃটিশ বিরোধী আন্দোলনে যোগদানের মাধ্যমে ডাঃ এম এ সোবহান রাজনীতিতে হাতেখড়ি। পরবর্তী সময়ে ভাষা আন্দোলন, আইয়ুব বিরোধী আন্দোলন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলন, ৭৫’র পরবর্তী স্থানীয় আওয়ামীলীগকে সু-সংগঠিত করে জিয়া, এরশাদ ও খালেদা জিয়া সরকারের বিরুদ্ধে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনসহ প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলনে অংশ গ্রহন করেন তিনি। আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালনের জন্য একাধিকবার দীর্ঘ সময় কারাভোগ করেন এই আওয়ামীলীগ নেতা।

রাজনৈতিক জীবদ্দশায় ডাঃ এম এ সোবহান বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ময়মনসিংহ উত্তর জেলার প্রতিষ্ঠাতা যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও স্বাধীনতা উত্তর আওয়ামীলীগের সাধারন সস্পাদক এর দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া স্বাধীন বাংলা সংগ্রাম পরিষদের সাধারন সম্পাদক এবং বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাকশাল গঠিত হলে থানা বাকশালের সাধারন সম্পাদক ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ গৌরীপুর উপজেলা শাখা কমান্ডের কমান্ডারসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে তিনি দায়িত্ব পালন করেন।

বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ডের পর আওয়ামীলীগের পুর্নগঠনে গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা পালন করেন ডাঃ এম এ সোবহান। ৭৫’র পরবর্তীতে আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করে দলকে সংগঠিত করেন তিনি।

দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে তিনি নেতাজী সুভাস চন্দ্র বসু, শেরে বাংলা এ.কে.এম ফজলুল হক, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্নেহ ও সান্নিধ্য লাভ করেন। ২০১১ সালের ৩ জুন ৮৭ বছর বয়সে তিনি মৃত্যু বরন করেন।

আপনার মতামত লিখুন :