বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগ করবে জাপানের ১০০ কোম্পানি : নাওকি ইতো

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত : সোমবার ২৬ জুলাই, ২০২১ /

জাপান বাংলাদেশের অন্যতম বন্ধু রাষ্ট্র হিসেবে দীর্ঘদিন যাবত কাজ করে আসছে। দেশের বিভিন্ন অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে জাপান বিনিয়োগ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে।
ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত নাওকি ইতো এ তথ্য জানিয়ে বলেছেন, প্রাথমিকভাবে আড়াইহাজারের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগ করবে জাপানের কোম্পানিগুলো। আড়াইহাজার অর্থনৈতিক অঞ্চলে সর্বোচ্চ বিনিয়োগের পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে এবং বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের জন্য বিশেষ প্রণোদনার ব্যবস্থা করতে হবে।
কসমস ডায়লগে ভার্চুয়ালী যুক্ত হয়ে বলেন, বাংলাদেশের তিনটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলের মাধ্যমে জাপান তাদের বিনিয়োগ বাড়াতে চায়। তবে আড়াইহাজারের সফলতার ওপর মূলত বিনিয়োগ নির্ভর করছে। আড়াইহাজারে সফলতা পেলে মীরসরাইয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প নগর এবং মহেশখালী-মাতারবাড়ি অর্থনৈতিক অঞ্চলেও বিনিয়োগের ব্যাপারে কাজ করবে জাপান।
আড়াইহাজার অর্থনৈতিক অঞ্চল এশিয়ার ভিয়েতনাম, মিয়ানমার এবং ফিলিপাইনের অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোকেও পিছনে ফেলতে সক্ষমতা অর্জন করতে পারে।
নাওকি ইতো বলেন, জাইকা ইতোমধ্যেই মীরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ শুরু করছে এবং খুব শিগগিরই মাতারবাড়ি অর্থনৈতিক অঞ্চল নিয়ে কাজ শুরু করবে।
জাপান রোহিঙ্গা সংকটের দীর্ঘমেয়াদী ও টেকসই সমাধান খুঁজছে উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে মিয়ানমারে কী ঘটছে তা অনুমান করা খুব কঠিন। এই সংকটের সমাধান পুরো অঞ্চলে ভবিষ্যতে স্থিতিশীলতা আনতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।
কূটনীতিক ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা ড. ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশ হিসেবে উঠে আসার ক্ষেত্রে জাপান চমৎকার বাণিজ্যিক অংশীদার।
দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ছাড়াও জাপান বরাবরই এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের তহবিল বাংলাদেশের জন্য সহজতর করেছে।

আপনার মতামত লিখুন :