বেকারি খুলেছে বলে তরুণীকে ডেকে নিয়ে ‘গণধর্ষণ’

শেখ মাসুদ ইকবাল
প্রকাশিত : শনিবার ১৮ এপ্রিল, ২০২০ /

বেকারিতে কাজ করা এক মেয়েকে বেকারি খোলা আছে বলে ডেকে নিয়ে এক তরুণীকে (১৭) গনধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে কিশোরগঞ্জ জেলার হোসেনপুরে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার সাহেদল এলাকার একটি বেকারিতে কাজ করত ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সম্প্রতি বেকারিটি বন্ধ হয়ে যায়। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে বেকারির কর্মচারী জাহাঙ্গীর আলম বেকারিতে কাজ আছে বলে মেয়েটিকে ডেকে নিয়ে যায়। তার কথামতো মেয়েটি সেখানে গিয়ে বেকারিটি বন্ধ দেখতে পায়।

পরে রাতে বাড়ি ফেরা নিরাপদ নয়, এমন কথা বলে জাহাঙ্গীর মেয়েটিকে নিয়ে পার্শ্ববর্তী জিনারী গ্রামে তার পরিচিত তারা মিয়ার বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে পাশের একটি জঙ্গলে নিয়ে রাত ২টার দিকে জাহাঙ্গীর আলম, তারা মিয়া, জামান ও সুমন নামে চারজন মিলে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে।

খবর পেয়ে পুলিশ আজ শনিবার দুপুরে মেয়েটিকে উদ্ধার ও অভিযুক্তদের মধ্যে তিনজনকে আটক করে। এ সময় অভিযুক্ত সুমন পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে হোসেনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান দৈনিক আমদের সময়কে জানান, অভিযুক্তদের মধ্যে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সুমন নামে আরেকজনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

এ বিষয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণে জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

আপনার মতামত লিখুন :