বেরোবির কোটা আন্দোলনের দুই নেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : রবিবার ২৮ এপ্রিল, ২০১৯ /

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতৃত্ব দেয়া সাধারণ শিক্ষার্থী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক রোকনুজ্জামান রবিউল ও সদস্য সচিব রেজাউল করিম শাকিলকে ক্যাম্পাস থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার (২৭ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ ফাঁড়ির থেকে তাদের তাজহাট থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক রোকনুজ্জামান রবিউল ও সদস্য সচিব রেজাউল করিম শাকিলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাজহাট থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। রোকনুজ্জামান রবিউল বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষে অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী এবং রেজাউল করিম শাকিল ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী।

এর আগে গত বুধবার (২৪ এপ্রিল) উপাচার্যকে সার্বক্ষণিক ক্যাম্পাসে অবস্থান করা, ছাত্র সংসদ নির্বাচন, শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে সেশনজট নিরসনসহ ১৭ দফা দাবিতে সাধারণ শিক্ষার্থী পরিষদের ব্যানারে সংবাদ সম্মেলন করেন কোটা সংস্কার আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়া বেরোবির সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

এ ব্যাপারে কোটা সংস্কার আন্দোলনের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান বলেন, কোনো সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের নামে একটি সংগঠনের আহ্বায়ক ও সদস্য সচিবকে এভাবে পুলিশের তুলে নেয়ার কোনো এখতিয়ার নেই। যতটুকু জেনেছি শিক্ষার্থীদের দাবির পক্ষে সংবাদ সম্মেলনের জের ধরে তাদের হয়রানির উদ্দেশে তুলে নেয়া হয়েছে। বিষয়টি সাংগঠনিকভাবে দেখা হচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. আবু কালাম মো. ফরিদ উল ইসলাম বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুই শিক্ষার্থীকে থানায় নেয়ার বিষয়টি জেনেছি। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের ছেড়ে দেয়ার কথা।

এ ব্যাপারে তাজহাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রোকনুজ্জামান বলেন, তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তবে কোনো সুনির্দিষ্ট অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এ জিজ্ঞাসাবাদ কি না- জানতে চাইলে তিনি তা জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

আপনার মতামত লিখুন :