“মহান মে দিবসে চাতাল শ্রমিকদের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা “

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : শুক্রবার ১ মে, ২০২০ /

তৈরি পোষাক, চা, পরিবহন,চাতাল(চাল কল) ইত্যাদি শিল্পে শ্রম দিচ্ছে লাখ, লাখ শ্রমিক।

এদের শ্রমেই ঘুরছে সভ্যতার চাকা।সরকার বদল হয়েছে, মালিক বদল হয়েছে বারবার। কিন্তুু বদলায়নি এ শ্রমজীবিদের জীবনের গতি, উন্নত হয়নি জীবন যাত্রার মান, শুধু ঘুরছেনা তাদের ভাগ্যের চাকা।

অনেক ক্ষেএে দেখা যায় শ্রমের সঠিক মূল্যও পায়না তারা।

বিভিন্ন সময়ে শ্রমিক সংগঠন গুলো তাদের দাবী, ও অধিকার আদায়ে মাঠে নেমেছে।

সরকার ও বিভিন্ন সংগঠন প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে এদের সমস্যা সমাধানের জন্যে।

“গঠন করা হয়েছে শ্রম আদালত” “শ্রম আইন”
যাতে করে শ্রমিক বিনা খরচে তার সকল আইনি সহায়তা পেতে পারেন সে ব্যবস্থাও বর্তমান আওয়ামী সরকার করেছে।

“আমি ছোটবেলা থেকেই চাতাল(চাল কল) শ্রমিকদের কষ্ট দেখে বড় হয়েছি, তাই আজ তাদের কথা বলবো”

চাতাল কথা…
বাসার সাথেই আমাদের রাইচ মিল(চাতাল),সে সুবাদে সকাল বেলা ঘুম ভাঙতো সেদ্দ ধানের মিষ্টি গন্দে। ধান→চাল→ভাত এ প্রসেস সবাই জানি,কিন্তু এর পিছনে রয়েছে আরেক গল্প।
ধান সংগ্রহের পর, পানিতে ভিজানো,সিদ্ধ কারা,রোদে শুকানো, আরও কয়েকটি ধাপ শেষে আপনার বাসায় চাউলের বস্তা রুপে চলে যায় চাল।

প্রচন্ড রোদে একদল শ্রমিক ধান শুকানোর কাজ করেন, এদের যে নেতৃত্বদেন তাকে স্থানিয় ভাষায় “বহরদার “(দল নেতা) বলা হয়। ইদানিং প্রযুক্তিগত উন্নয়নের ফলে এ শিল্পেয়ও এর কিছুটা ছুয়া লেগেছে, হয়েছে সেমি অটো মিল, ফুল অটো মিল, অটো ড্রায়ার মিল, রাইচ প্রসেসিং মিল সহ ইত্যাদি।

সারা দেশে প্রায় ১৭ হাজার এরও বেশি চাতাল রয়েছে, আর এতে শ্রম দেয় প্রায় ৪লাখ শ্রমিক। এটি একটি মাঝারি শিল্প। ময়মনসিংহ জেলার, মুক্তাগাছা থানাধীন, চেচুয়া,বাঘমারা,আঞ্চলে এ শিল্পের একটি ক্ষেএ গড়ে উঠেছে। এতো শ্রম দিয়ে যারা এশিল্পকে বাচিয়ে রেখেছে “আজ মে দিবসে “তাদের জানাচ্ছি অনেক, অনেক প্রীতি- শুভেচ্ছা ও অভিন্দন।

“সকল শ্রমজীবী ভাই ও বোনদের মে দিবসের শ্রদ্ধা- অভিন্দন ও ভালোবাসা ”

মোঃ রফিকুল ইসলাম (রবিন)
মালিক পক্ষ :
“আমজাদ রাইস মিল ”
বাঘমারা, চেচুয়া,মুক্তাগাছা, ময়মনসিংহ।

আপনার মতামত লিখুন :