মাদরাসায় রাতের খাবার খেয়ে হাসপাতালে ৪৫ ছাত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার ২৬ আগস্ট, ২০২১ /

দিনাজপুরের বীরগঞ্জের এক মাদরাসায় রাতের খাবার খেয়ে হয়ে ৪৫ ছাত্র অসুস্থ হয়েছে। পরে তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করা হয়।

বুধবার রাত ১১টা থেকে ১২টা মধ্যে তাদের হাসাপাতালে নেয়া হয়।

অপরদিকে, মাদরাসার রান্না ঘরের পাশ থেকে সমিকরণ নামে একটি কীটনাশকের বোতল উদ্ধার করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বীরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
উপজেলার ৮নং ভোগনগর ইউনিয়নের ভাবকী পাবনা গাড়া তাজুল উরুম এতিম খানা ও লিল্লাাহ বোর্ডিংয়ে এ ঘটনা ঘটে। মাদরাসাটির বিভিন্ন বিভাগে ৮০ শিক্ষার্থী রয়েছে।

জানা গেছে, বুধবার (২৫ আগস্ট) রাত ১০টার দিকে ছাত্ররা রাতের খাবার খেতে বসলে অনেকের তিতা অনুভব করে। পরে রাত ১১টার দিকে তাদের মাথা ঘোরা ও বমি শুরু হয়। এ সময় মাদরাসা কর্তৃপক্ষ দ্রুত তাদের বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। তাদের মধ্যে ৪৫ জনকে হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

বীরগঞ্জ হাসাপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আফরোজা সুলতানা জানান, শিশুরা বর্তমানে সুস্থ রয়েছে।
মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা রাকিব ও মাওলানা হাসানুজ্জামান জানান, রাতের খাবারের পর ছাত্ররা অসুস্থ হয়ে পড়লে দ্রুত হাসাপাতালে নেয়া হয়। এ সময় মাদরাসার রান্না ঘরের সামনে থেকে সমিকরণ নামে একটি কীটনাশকের খালি বোতল পাওয়া যায়। সেটি চিকিৎসক দেখতে চাইলে রাতেই হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বীরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মজিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মিটিংয়ে রয়েছেন বলে ফোন কেটে দেন।

আপনার মতামত লিখুন :