মুক্তাগাছায় শিক্ষিকাকে লাঞ্ছনা: সেই ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল, ২০১৯ /

ময়মনসিংহর মুক্তাগাছায় স্কুল শিক্ষিকাকে লাঞ্ছনা, হয়রানি ও হুমকির অপরাধে কারাগারে থাকা ছাত্রলীগ নেতা মমিনুল ইসলামকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

বুধবার রাতে এ সংবাদ বিজ্ঞতির মাধ্যমে বহিষ্কারাদেশ জানান মুক্তাগাছা শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ শাখার সভাপতি রকিব উদ্দিন আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক সিফাত আহমেদ খান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘মুক্তাগাছা শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মমিনুল ইসলাম মমিন কর্তৃক মুক্তাগাছা পৌর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে লাঞ্ছিত ও হয়রানি এবং প্রাণনাশের হুমকি প্রদানের সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে ১০ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করেন। অতএব, মুক্তাগাছা সমগ্র ছাত্রলীগের ভাবমুর্তি ক্ষুণ্ন ও সংগঠন বিরোধী কাজে লিপ্ত থাকায় মুক্তাগাছা শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের জরুরি সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক মমিনুল ইসলাম মমিনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হলো। সেই সাথে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি- সাধারণ সম্পাদক এর কাছে স্থায়ী বহিষ্কার করার জন্য সুপারিশ করা হলো।

ইউএনও সুবর্ণা সরকার জানান, এনএন পৌর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা আইনুন নেছা তার সন্তানকে স্কুলে দিয়ে ফেরার সময় ১৭ এপ্রিল ওই ছাত্রলীগ নেতা তার শরীরে মোটরসাইকেল দিয়ে ধাক্কা দেন এবং তাকে আধঘণ্টা রাস্তায় দাঁড় করিয়ে রেখে হয়রানি করেন।

সোমবার রাত সাড়ে ১১টায় অভিযান চালিয়ে শহরের বড়হিস্যা বাজারের কালীমন্দিরের সামনে থেকে মমিনকে গ্রেফতার করে মুক্তাগাছা থানা পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুবর্ণা সরকার তাকে দশদিনের কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠিয়ে দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত মমিন মুক্তাগাছা শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

মুক্তাগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদ বলেন, ওই ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে আরও একাধিক মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :