মেসির পরবর্তী গন্তব্য কোথায়?

গৌরীপুর নিউজ
প্রকাশিত : শুক্রবার ৬ আগস্ট, ২০২১ /

আনুষ্ঠানিকভাবে ক্লাব বার্সেলোনার সঙ্গে মেসির দীর্ঘ ২০ বছরের পথচলা শেষ হয়েছে। ফ্রি এজেন্ট মেসিকে পাওয়ার দৌড়ে নেমে পড়েছে বিশ্বের নামিদামি ক্লাবগুলো। বার্সার সঙ্গে চুক্তি হচ্ছে না জানার পরপরই মেসিকে পাওয়ার দৌড়ে এগিয়ে এসেছে প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)। শুধু ফরাসি জায়ান্টরাই নয়, মেসিকে পেতে চায় ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিও।

বার্সেলোনার সঙ্গে মেসির সর্বশেষ চুক্তি অনুযায়ী তার সাপ্তাহিক বেতন ছিল ২.৫ মিলিয়ন ব্রিটিশ পাউন্ড। তবে আসন্ন মৌসুমে নতুন চুক্তি হলে মেসির পাওয়ার কথা ছিল সপ্তাহে ১.২ মিলিয়ন ব্রিটিশ পাউন্ড। কারণ অর্ধেক বেতনে বার্সেলোনায় খেলতে রাজি ছিলেন তিনি। কিন্তু যেহেতু সেটা হচ্ছে না, সুতরাং মেসিকে হাঁটতে হবে ভিন্ন পথে। আর্জেন্টাইন সুপারস্টারকে পেতে হলে দিতে হবে আকাশচুম্বী বেতন।

মেসির মতো ফুটবলারকে কেনার সামর্থ্য রয়েছে হাতেগোনা কয়েকটি ক্লাবের। তাদের অন্যতম পিএসজি ও ম্যানচেস্টার সিটি। মেসিকে শুরু থেকে পেতে মরিয়া তারা। কিন্তু মেসি যখন বার্সায় থাকতে চাওয়ার ইচ্ছের কথা শোনান তখন তাকে পাওয়ার আশা ছেড়েই দিয়েছিল ক্লাব দুটি। কিন্তু চুক্তি না হওয়াতে মেসিকে পেতে আবারো দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছে পিএসজি। এমনটাই নিশ্চিত করেছে বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবর।

মেসিকে পেতে হলে পিএসজির সামনেও রয়েছে বাধা। ফ্রান্সের ট্যাক্স সংক্রান্ত জটিলতায় পড়তে হতে পারে ফরাসি জায়ান্টদের। মেসি যদি বার্ষিক ৩০ মিলিয়ন ইউরো চায়, সেক্ষেত্রে পিএসজিকে ট্যাক্স দিতে হবে আরও ৪০ মিলিয়ন ইউরো। পিএসজির মাথাব্যথার আরেক কারণ বর্তমান তারকা ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপে। ফরাসি তারকাকে নতুন চুক্তিতে রাজি করানোর চেষ্টায় এখনো সফল হতে পারেনি পিএসজি। মেসি তার নতুন ঠিকানা হিসেবে কেন পিএসজিকে বেছে নিতে পারেন সেটা বিশ্লেষণ করেছে স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কা। তাদের মতে, বন্ধু নেইমারের সঙ্গে জুটি বাঁধার সুযোগ এবং আর্জেন্টাইন দুই সতীর্থ আনহেল ডি মারিয়া ও লেয়ান্দ্রো পারেদেস রয়েছে পিএসজিতে।

মেসিকে পাওয়ার দৌড়ে রয়েছে ইংলিশ ক্লাব ম্যানসিটিও। কিন্তু গতকাল সিটিজেনরা রেকর্ড ১০০ মিলিয়ন ব্রিটিশ পাউন্ডে দলে ভিড়িয়েছে ইংলিশ মিডফিল্ডার জ্যাক গ্রিলিশকে। তাতেই তাদের মেসিকে নেওয়ার সম্ভবনা অনেকখানি কমে এসেছে। আরেক ইংলিশ তারকা হ্যারি কেইনকে পাওয়ার তোড়জোড় শুরু করেছে তারা। গ্রিলিশকে দলে আনা এবং কেইনকে পাওয়ার চেষ্টা চালালেও মেসিকে দলে ভেড়ানোর চেষ্টা দুর্বল করে দিচ্ছে তাদের।

এদিকে, মেসির যুক্তরাষ্ট্রের ক্লাব ইন্টার মিয়ামিতে যোগ দেওয়ার গুঞ্জন উঠেছে আরেকবার। মেজর সকার লীগের দলটির মালিক ডেভিড বেকহাম। গত জুনে বেকহামের সঙ্গে কথা বলেছিলেন মেসি। তখন জার্মান সংবাদমাধ্যম ‘কিকার’ জানিয়েছিল, বার্সায় চুক্তির মেয়াদ শেষে ক্যারিয়ারের বাকি সময় ইন্টার মিয়ামিতে শেষ করতে পারেন মেসি। সেই ধারণা থেকেও মেসির পরবর্তী গন্তব্য যুক্তরাষ্ট্র হতে পারে।

আপনার মতামত লিখুন :