ময়মনসিংহে প্রশাসনের কঠোরতায় লকডাউনের দ্বিতীয় সপ্তাহে কমেছে মামলা ও জরিমানা

আরিফ রববানী
প্রকাশিত : শুক্রবার ৬ আগস্ট, ২০২১ /

করোনা ভাইরাসকে কেন্দ্র করে সারাদেশের ন্যায় ময়মনসিংহ জেলায় ও চলছে কঠোর লকডাউন। এই লকডাউনে সরকারি বিধি-নিষেধ অমান্য করায় গত ২৩শে জুলাই থেকে ৫ই আগষ্ট পর্যন্ত লকডাউনের দুই সপ্তাহ অর্থাৎ ১৪ দিনে ৩ হাজার ৩২৬ মামলায় ২০ লাখ ৪৯ হাজার ৬৮০ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এতে প্রথম সপ্তাহে গত লকডাউনে-২,২৬৬ মামলায় ১৩,৭২,৭১৫৳(দুই হাজার ২শ ৬৬টি মামলায় ১৩ লক্ষ বাহাত্তর হাজার ৭শ ১৫ টাকা) জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। জেলা প্রশাসনের কঠোরতায় প্রথম সপ্তাহের তুলনায় দ্বিতীয় সপ্তাহে কমেছে মামলা ও জরিমানা। স্বাস্থ্য বিধি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হয়েছে ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসন।

ময়মনসিংহের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আয়েশা হক জানান, ২৩থেকে ২৯শে জুলাই পর্যন্ত জেলার ১৩টি উপজেলায় ১৩ জন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, ১২ জন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট এবং জেলা প্রশাসন কর্তৃক নিয়োজিত ২৮ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটসহ মোট ৫২ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ভোর ৬.০০ টা হতে রাত ১০.০০ পর্যন্ত পুরো ময়মনসিংহ জেলায় শহরে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করছেন। এতে গত ২৩ জুলাই ২০২১ থেকে ৫ই আগষ্ট ২০২১ তারিখ পর্যন্ত পরিচালিত মোবাইল কোর্টে মোট
১৪ দিনে ৩ হাজার ৩২৬ মামলায় ২০ লাখ ৪৯ হাজার ৬৮০ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এবিষয়ে জেলা প্রশাসক মোঃ এনামুল হক জানান, সরকারি বিধি-নিষেধ অমান্য করে রাস্তাঘাটে ঘোরাফেরা, আড্ডা, স্বাস্থ্য বিধি না মানায় এসব মামলা এবং জরিমানা করা হয়েছে। সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনের প্রথম দিন ২৩ শে জুলাই থেকে ৫ই আগষ্ট পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতে সর্বমোট- ৩ হাজার ৩২৬ মামলায় ২০ লাখ ৪৯ হাজার ৬৮০ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।। তিনি বলেন-জেলা প্রশাসন কর্তৃক নিয়োজিত ২৮ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটসহ মোট ৫২ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ভোর ৬.০০ টা হতে রাত ১০.০০ পর্যন্ত পুরো ময়মনসিংহ জেলায় শহরে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণে অভিযান পরিচালনা করেছে। তিনি বলেন-এতে প্রথম সপ্তাহে গত লকডাউনেই-২,২৬৬ মামলায় ১৩,৭২,৭১৫৳(দুই হাজার ২শ ৬৬টি মামলায় ১৩ লক্ষ বাহাত্তর হাজার ৭শ ১৫ টাকা) জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।স্বাস্থ্য বিধি নিয়ন্ত্রণে রাখায় দ্বিতীয় সপ্তাহে মামলা ও জরিমানার হাড় অনেকটাই কমেছে বলে জানান তিনি।

জেলা প্রশাসক মহোদয় আরো বলেন, কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে মানুষদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করণে সচেতন করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে চলমান লকডাউন কঠোরভাবে নিশ্চিত করা হচ্ছে। এর সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনী মাঠে কাজ করছেন। জনস্বার্থে জেলা প্রশাসনের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।
এদিকে শনিবার ১৪তম দিনের মত ময়মনসিংহ জেলাজুরে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউন মানাতে জিরোটলারেন্সে ছিলো জেলা প্রশাসন। এই লকডাউন বাস্তবায়নে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ টিম, পুলিশ, সেনাবাহিনী, বিজিবি কাজ করছে। সকাল থেকে দেখা গেছে, বন্ধ রয়েছে সকল ধরনের দোকানপাট, শপিংমল ও বিপনী বিতান।

জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা হক বলেন, ‘সরকার ঘোষিত কঠোর বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে প্রতিদিন নিয়মিত ময়মনসিংহ জেলার ১৩টি উপজেলায় ১৩ জন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, ১৩ জন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও জেলা প্রশাসনের ২৬ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটসহ মোট ৫২ জন অভিযান পরিচালনা করেন। এসব অভিযানে ১৪ দিনে ৩ হাজার ৩২৬ মামলায় ২০ লাখ ৪৯ হাজার ৬৮০ টাকা জরিমানা করা হয়। তিনি জানান- জনস্বার্থে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। অভিযান কে সফল করতে তিনি ময়মনসিংহবাসীর সার্বিক সহযোগিতাও প্রত্যাশা করেন।।

আপনার মতামত লিখুন :